সংবাদ শিরোনাম

খালেদা জিয়ার সিটি স্ক্যানের রিপোর্ট নিয়ে যা বললেন চিকিৎসক২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিলেন কাদের মির্জাটাঙ্গাইলে ভন্ড পুরুষ কবিরাজ নারী সেজে যুবককে বিয়ে! অতঃপর…ব্যক্তিগত কাজে সরকারি গাড়ি নিয়ে স্বাস্থ্য কর্মকর্তার ঢাকা ভ্রমণ!শেরপুরের সেই শিশু রোকনের পরিবারের পাশে ইউএনও!কক্সবাজারে অস্ত্রসহ ডাকাতি মামলার আসামি গ্রেফতারকক্সবাজারে অনুপ্রবেশকারীর পক্ষ না নেয়ায়, আ’লীগ সভাপতিকে অব্যাহতি!শাহজাদপুরে ট্যাংকলরি সিএনজি’র মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ১রমজান মাসে আলেমদের হয়রানি মেনে নেয়া যায় না: নুরুল ইসলাম জিহাদীখালেদা জিয়াকে পাকিস্তান-জাপান দূতের চিঠি

  • আজ ৩রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বিদ্যালয়ে বাবার দানকৃত জমি দখল করে ভবন নির্মাণ করছেন, তার ছেলে

৪:২৯ পূর্বাহ্ন | শনিবার, অক্টোবর ২২, ২০১৬ আলোচিত বাংলাদেশ, দেশের খবর, মফস্বল সংবাদ, শিক্ষাঙ্গন, স্পট লাইট

সময়ের কণ্ঠস্বর:  লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার পূর্ব শেখপুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি ফারুক হোসেনের বিরুদ্ধে একই বিদ্যালয়ের জমি দখল করে দ্বিতল ভবন নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকসহ এলাকাবাসীর মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

স্থানীয়সূত্রে  জানা যায় যে, ১৯৯৩ সালে উপজেলার পূর্ব শেখপুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠাকালে স্থানীয় সরাফত আলী মিয়া, হাবিবুর রহমান ও সুজা মিয়াসহ কিছু ব্যক্তি বিদ্যালয়ের নামে ৩৩ শতক জমি দান করেন। কিন্তু প্রতিষ্ঠার পর থেকে সরাফত আলীর ছেলে ফারুক হোসেন তার বাবার ওই দানকৃত জমি দখল করে রেখেছেন।

primary-school-land-capture

ইতোমধ্যে তিনি বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হয়ে ওই জমিতে ভবন নির্মাণে বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন। গত এক সপ্তাহ ধরে তিনি ওই জমিতে দ্বিতল ভবন নির্মাণের জন্য কাজ শুরু করেছেন। বিদ্যালয় ভবনের পেছনের জমিতে স্তুপ করে রেখেছেন ইট-বালু।

এতে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও এলাকাবাসীসহ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির বর্তমান ও সাবেক সদস্যরা। অবিলম্বে ওই ভবন নির্মাণকাজ বন্ধ করার জন্য তারা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক মো. হারুনুর রশিদ জানান, ফারুক হোসেন প্রশাসনকে ম্যানেজ করে সম্পত্তি দখল করার জন্যই নিয়ম বহির্ভুতভাবে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি হয়েছিলেন। আর সভাপতি হওয়ার পরপরই জোর করে এখন বিদ্যালয়ের জমিতে দ্বিতল ভবণের নির্মাণকাজ করছেন।

বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হাজী আবদুল মতিন বলেন, ‘১৯৯৩ সালের পর থেকে ফারুকের বাবা শরাফত আলী শেখপুরা গ্রামের ভূমিদস্যু হিসেবে বেশ পরিচিতি ছিল। এর ধারাবাহিকতায় তার ছেলে ফারুকও বিদ্যালয়ের সম্পত্তিতে ভবন নির্মাণ করছেন।’

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ফারুক হোসেন বলেন, ‘বিদ্যালয়ের অনেক সম্পত্তি অনেকেই দখল করে আছে। সেগুলো আগে দখলমুক্ত হোক। তারপর আমি আমারটা ফেরত দেব।’

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দিলোয়ারা বেগম জানান, বিদ্যালয়ের ৩৩ শতক জমি কাগজে-কলমে থাকলেও দখলে নেই। দূর থেকে এসে তারা চাকরি করছেন। তাই সম্পত্তি উদ্ধার করতে গেলে তাদেরকে অনেক ঝামেলা পোহাতে হবে এজন্য তারা উদ্যোগ নিতে পারছেন না বলে তিনি জানান।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান মোল্লা জানান, বিষয়টি আমার জানা নেই। খোঁজ-খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।