• আজ ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বাবার সঙ্গে শত্রুতার জেরে ৪ বছরের মেয়েকে নির্মমভাবে হত্যা

২:২৪ অপরাহ্ন | শনিবার, অক্টোবর ২২, ২০১৬ দেশের খবর, রাজশাহী

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: বাবার সঙ্গে শত্রুতার জের ধরে সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে উপজেলায় চার বছরের মেয়েকে অপহরণের পর হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। অপহরণের ১৬ দিন পর শনিবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার জামতৈল এলাকার প্রধান ডাকঘরের পাশের জঙ্গলের পরিত্যক্ত একটি কূপ থেকে বস্তাবন্দি অবস্থায় শিশু জান্নাতুল খাতুন চাঁদনীর গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে জামতৈল রেলওয়ে স্টেশনের কুলির সর্দার আনোয়ার হোসেনের মেয়ে।pik-kill-chadni

এ ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তারা হলেন— জামতৈল গ্রামের প্রয়াত আব্দুল হামিদ শেখের ছেলে মঞ্জু শেখ (২৫), প্রয়াত খোদা বক্সের ছেলে লালন (৩৪), চৈতা সরকারের ছেলে আয়ুব ওরফে কাঠাল (৩৫) ও সাবাদ শেখের ছেলে বকুল হোসেন (৪০) এবং উল্লাপাড়া উপজেলার কাওয়াক গ্রামের প্রয়াত লিটন শেখের ছেলে নাজমুল।

গ্রেফতার পাঁচজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পাওয়া তথ্যের বরাত দিয়ে কামারখন্দ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাবুল উদ্দীন সর্দার জানান, গত ৭ অক্টোবর বিকেলে মাদকসেবী মঞ্জু সিঙ্গারা খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে শিশু চাঁদনীকে অপহরণ করে। এরপর মাত্র ৫ হাজার টাকায় মাদক ব্যবসায়ী নাজমুলের কাছে তাকে বিক্রি করে দেয়।

তিনি জানান, চাঁদনী নিখোঁজ হওয়ার পর তার বাবা কামারখন্দ থানায় মামলা করলে পুলিশ প্রথমে মাদকসেবী মঞ্জু ও পরে নাজমুলকে গ্রেফতার করে। এরপর জিজ্ঞাসাবাদে তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে লালন, আয়ুব ও বকুল নামে আরও তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদেরকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করার পর তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে শনিবার সকালে পরিত্যক্ত কূপ থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়।

ওসি জানান, মাদক ব্যবসা সংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতা ও দ্বন্দের জের ধরে কুলি সর্দারকে শায়েস্তা করতে তার শিশুকন্যাকে অপহরণের পর খুন করা হয়েছে বলে মাদকসেবী মঞ্জু ও মাদক ব্যবসায়ী নাজমুল প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে।