• আজ ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সপ্তাহ জুড়ে ক্লাস বর্জন : শিক্ষার্থীরা মহাসড়কে কলেজ জাতীয়করণের দাবিতে উত্তাল নন্দীগ্রাম

৫:০২ অপরাহ্ন | রবিবার, অক্টোবর ২৩, ২০১৬ Breaking News, শিক্ষাঙ্গন

মুনিরুজ্জামান মুনির, নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়া জেলার সবচাইতে পুরাতন নন্দীগ্রাম মনসুর হোসেন ডিগ্রী কলেজ জাতীয়করণের দাবিতে সপ্তাহ জুড়ে ক্লাস বর্জন, মহাসড়কে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচী অব্যাহত রেখেছে কলেজের শিক্ষার্থীরা। জাতীয়করণের দাবীতে উত্তাল হয়ে উঠছে নন্দীগ্রাম। গত ১৬ই অক্টোবর সকালে কলেজ ক্যাম্পাসে তালা ঝুলিয়ে সব ধরনের ক্লাস বন্ধ করে দেয় শিক্ষার্থীরা।

সপ্তাহ জুড়ে ক্লাস বর্জন করে বগুড়া-নাটোর মহাসড়কে কলেজ জাতীয়করেণের এক দফা দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে আসছে ছাত্র আন্দোলন পরিচালনা কমিটি। দ্রুত সময়ের মধ্যে তাদের দাবি আদায় না হলে বৃহত্তর আন্দোলনে কর্মসূচী ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন ছাত্র আন্দোলন পরিচালনা কমিটি আহ্বায়ক আহম্মেদ জয় শুভ।

সর্বশেষ সারা দেশে আরও ২৩টি কলেজকে জাতীয়করণের ঘোষণা দিয়েছে সরকার। ওই তালিকায় নন্দীগ্রাম মনসুর হোসেন ডিগ্রী কলেজের নাম না থাকায় আন্দোলনে নেমেছে কলেজের শিক্ষার্থীরা। সরকারের ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও স্বার্থান্বেষী একটি বিশেষ মহলের ইশারায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিকে জাতীয়করণ করা হয়নি বলে দাবি আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায, শিক্ষকার কলেজে উপস্থিত হলেও শিক্ষার্থীরা ক্লাস বর্জন করার তারা কোন ক্লাস নিতে পারছেন না। রবিবার সকাল থেকেই কলেজ গেটের সামনে বগুড়া-নাটোর মহসড়কে শিক্ষার্থীরা মানববন্ধর ও দফায় দফায় বিক্ষোভ মিছিল করেছে। এছাড়াও দুপুর ১২টায় একটি বিক্ষোভ মিছিল শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

nondi-college-bikkhov

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কলেজের কিছু শিক্ষক জানান, যথাস্থানে টাকা না দেওয়ার কারণে আমাদের কলেজ বাদ দিয়ে অন্য একটি কলেজ জাতীয় করণ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে মুঠোফোনে কলেজের অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলারে নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার জানামতে জাতীয়করণের জন্য প্রধান মন্ত্রীর কার্যালয় থেকে শুরু করে মন্ত্রনালয় পর্যন্ত কোথাও কোন উৎকোচ দেওয়ার সুযোগ নেই। নীতি মালা অনুযায়ী কলেজ জাতীয় করণ করা হয়। আমাদের কলেজ সরকারীকরণের জন্য এলাকার সাংসদের সুপারিশ ছিল। সরকারীকরণের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অগ্রাধিকার তালিকায় উপজেলার শীর্ষে ছিল এই কলেজ। জাতীয়করণের নীতি মালা অনুযায়ী কলেজটি সকল মানদন্ডে উর্ত্তিণ হওয়া শর্তেও অদৃশ্য কারণে এই কলেজটির নাম জাতীয়করণের তালিকায় আসেনি। এতে করে আমরা হতাশ। অচিরেই আমাদের কলেজ জাতীয়করণের তালিকায় দেওয়ার জন্য সরকারের নিকট আবেদন জানাচ্ছি।