সংবাদ শিরোনাম

ছাত্রলীগ নেতার প্যান্ট চুরির ভিডিও ভাইরাল!পাটগ্রামে ইউএনও’র উপর হামলা, আটক ৬আগের সব রেকর্ড ভেঙ্গে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ৮৩ জনেরশফী হত্যা মামলা: মামুনুল-বাবুনগরীসহ ৪৩ জনকে অভিযুক্ত করে প্রতিবেদনখালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় সারাদেশে দোয়া কর্মসূচিরোহিঙ্গা শিবিরে ফের অগ্নিকান্ডসালথায় তান্ডব: এসিল্যান্ডের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগের সত্যতা মিলেনিশাহজাদপুরে কৃষকদের মাঝে হারভেস্টার মেশিন বিতরণচাঁদপুরে গণমাধ্যম সপ্তাহের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পেতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপিশ্রমিকদের যাতায়াতের ব্যবস্থা না করলে আইনি পদক্ষেপ : শ্রম প্রতিমন্ত্রী

  • আজ ৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘ঘোষণা দিলেই হয়, আমরা আবার পাঁচ বছরের জন্য ক্ষমতায় গেলাম’

২:৪৯ অপরাহ্ন | সোমবার, অক্টোবর ২৪, ২০১৬ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর- আওয়ামী লীগের কাউন্সিলে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা আগামী নির্বাচনের জন্য নেতা-কর্মীদের প্রস্তুতি নিতে বলেছেন। এ কথা উল্লেখ করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘প্রস্তুতির দরকার কি? আপনারা তো গতবার রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে ক্ষমতায় চলে এসেছেন বিনা ভোটে। ভোটের বা দরকার কি? ঘোষণা করে দিলেই হয়, আমরা আবার পাঁচ বছরের জন্য ক্ষমতায় চলে গেলাম। তাহলে তো এ নাটকের প্রয়োজন নেই।’

007_231852’সোমবার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক স্মরণসভায় মির্জা ফখরুল ইসলাম এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, কাউন্সিলের শেষ সেশনে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী যে কথাগুলো বলেছেন, তা গণতন্ত্রের জন্য বিপজ্জনক কথা। তিনি পরিষ্কার বলেছেন, বিএনপিকে ক্ষমতায় আসতে দেওয়া হবে না। এর সঙ্গে তিনি এটাও বলেছেন, আগামীবার আওয়ামী লীগকে অবশ্যই ক্ষমতায় আসতেই হবে যে কোনো মূল্যে। এ কথাগুলো থেকে এটা পরিষ্কার হয়ে গেছে তাদের লক্ষ্য কী এবং তারা কি করতে চান।

আগের দিন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর বক্তব্যও উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের বক্তৃতায় বিদেশি মেহমানরা ছিলেন, তাঁদের সামনে খুব বড় গলায় বলেছেন আওয়ামী লীগ গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছে, তারা গণতন্ত্রকে বিকশিত করতে চায়।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার অনৈতিকভাবে দেশ শাসন করছে। তারা গণতন্ত্রের সব স্তম্ভ ভেঙে দিয়েছে। ভোটের অধিকার, মানুষের কথা বলার, লেখার, সমবেত হওয়ার, প্রতিবাদ করার অধিকার কেড়ে নিয়েছে। এরা এমন একটি কর্তৃত্বপরায়ণ সরকার যারা প্রতি মুহূর্তে মিথ্যাচার করে জনগণের দৃষ্টি ফেরানোর জন্য বিভিন্ন ধরনের অপকৌশলের আশ্রয় নেয়।