সংবাদ শিরোনাম

কারওয়ান বাজারে সৌদি প্রবাসীদের বিক্ষোভ-সড়ক অবরোধচট্টগ্রামের বাঁশখালীতে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ, গুলিতে ৪ শ্রমিকের মৃত্যুগাছে মোটরসাইকেলে ধাক্কা, ২ ক‌লেজ ছা‌ত্রের মৃত্যুহেফাজতিরা ধর্মকে ব্যবহার করে ক্ষমতায় আসতে চায়: মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রীওবায়দুল কাদেরের বাড়িতে ককটেল হামলাশাহজাদপুরে থানা পুলিশের অভিযানে ইউপি সদস্যসহ ৯ জুয়াড়ি আটকখালেদা জিয়ার রোগ মুক্তি কামনায় ফরিদপুরে দোয়াওবায়দুল কাদেরকে কোম্পানীগঞ্জে ঢুকতে না দেওয়ার ঘোষণা কাদের মির্জারকরোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন এমপি ফারুক চৌধুরীর মাফরিদপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরে কলেজ শিক্ষার্থীর ওপর হামলা

  • আজ ৪ঠা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

‘বেঁচে থাকার জন্য ইঁদুরও খেতে হয়েছিল’

৯:০৫ অপরাহ্ন | সোমবার, অক্টোবর ২৪, ২০১৬ চিত্র বিচিত্র

অবাক পৃথিবী ডেস্ক- প্রায় পাঁচ বছর আগে সোমালিয়ায় জলদস্যুদের দ্বারা অপহৃত এক দল নাবিক সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছেন। অপহৃত হওয়া নাবিকদের মধ্যে একজন ছিলেন ফিলিপাইনের নাবিক আরনেল বালবেরো। তিনি বিবিসিকে জানিয়েছেন, জলদস্যুরা তাদের খুবই কম খাবার দিত। যে কারণে জঙ্গলে ইঁদুর রান্না করে খেতে হতো তাদের।

lllতিনি বলেন, ‘আমরা হাতের কাছে যা পেতাম তাই খেতাম। ক্ষুধা পেলে আপনিও হাতের কাছে যা পাবেন তাই খাবেন।’ মুক্ত হয়েও এখন তিনি ভাবছেন স্বাভাবিক জীবনে তিনি কবে ফিরতে পারবেন। তিনি জানান, দিনশেষে তাদের মনে হতো, মৃত্যুর সঙ্গে বসবাস করছেন তারা।

২০১২ সালে একটি জাহাজের ২৬ জন নাবিককে জিম্মি করে সোমালিয়ায় নিয়ে যায় জলদস্যুরা। সিচিলিসের দক্ষিণ থেকে জাহাজসহ তাদের জিম্মি করে সোমালিয়ার জলসদ্যুরা। ওই সময় একজন ক্রু নিহত হন।

এই নাবিকেরা ছিলেন বিভিন্ন দেশের নাগরিক। প্রায় পাঁচ বছর বন্দী থাকার পর মুক্তিপণ নিয়ে গত শনিবার তাদের ছেড়ে দিয়েছে জলদস্যুরা। জলদস্যুদের হাতে বন্দী নাবিকেরা ছিলেন চীন, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, কম্বোডিয়া, ভিয়েতনাম ও তাইওয়ানের নাগরিক।

জলদস্যুরা নাবিকদের জিম্মি করার এক বছর পর জাহাজটি ডুবে যায় এবং নাবিকদের সোমালিয়ার কূলে নিয়ে যাওয়া হয়। সেই সময়ে দুজন নাবিক অসুস্থ হয়ে মারা যান।

২৩ বছরে ১১ শিশুর মা, নিতে চান ১০০ সন্তান!

⊡ সোমবার, ফেব্রুয়ারী ১৫, ২০২১

এক মুলার ওজন সাড়ে ৮ কেজি !

⊡ শনিবার, ফেব্রুয়ারী ১৩, ২০২১

স্ত্রীর সঙ্গে প্রেমিকা নিয়ে গেলে অর্ধেক ছাড়!

⊡ শুক্রবার, ফেব্রুয়ারী ১২, ২০২১

Chicken ২৫ দিন ধরে থানার লকআপে ২ মুরগি!

⊡ শনিবার, ফেব্রুয়ারী ৬, ২০২১