• আজ ২৯শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ধর্ষিত শিশুটির প্রজনন অঙ্গে ক্ষত, অপারেশন বাতিল, চিকিৎসায় মেডিকেল বোর্ড গঠন

৬:২৫ অপরাহ্ন | বুধবার, অক্টোবর ২৬, ২০১৬ অপরাধ, আলোচিত

সময়ের কণ্ঠস্বর- দিনাজপুরের পার্বতীপুরে ধর্ষিত পাঁচ বছরের শিশুটির চিকিৎসার জন্য আট সদস্যের বোর্ড গঠন করেছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। গাইনি বিভাগের প্রধান ফেরদৌসি ইসলামের নেতৃত্বে এই বোর্ড করা হয়েছে।

women-rape-jpg-image_-784-410ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস (ওসিসি) সেন্টারের সমন্বয়কারী বিলকিস বেগম জানান, ধর্ষণের শিকার শিশুটির যৌনাঙ্গ খুবই আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে। আজ বুধবার সকালে তাকে অপারেশন করার জন্য ওটিতে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু যৌনাঙ্গ সংক্রমণ থাকায় অপারেশনের সিদ্ধান্ত বাতিল করা হয়েছে।

ওসিসি সমন্বয়কারী আরও জানান, শিশুটির অবস্থা গুরুতর ও জটিল। তার হাত-পায়ে ধারালো অস্ত্রের আঘাত, গাল ও গলায় কামড়ের চিহ্ন এবং শরীরে সিগারেটের ছ্যাঁকা দেয়ার ক্ষত রয়েছে।

এ অবস্থায় তার চিকিৎসায় একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে বলে জানান বিলকিস বেগম। এর আগে মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস (ওসিসি) সেন্টারে শিশুটিকে ভর্তি করা হয়।

গত ১৮ অক্টোবর পার্বতীপুর উপজেলার সিঙ্গীমারী জমিরহাট গ্রামে নিজ বাড়ির সামনে থেকে নিখোঁজ হয় ওই শিশু। ওইদিন রাতে তার বাবা পার্বতীপুর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। পরদিন ভোরে বাড়ির পাশে একটি হলুদ ক্ষেত থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে মেয়েটিকে।

এই ঘটনায় শিশুটির বাবা একই গ্রামের জহির উদ্দিনের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪২) ও আফজাল হোসেন কবিরাজকে (৪৮) আসামি করে পার্বতীপুর মডেল থানায় ধর্ষণ মামলা করেন। মামলার প্রধান আসামি সাইফুলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অপর আসামি পলাতক।