• আজ ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দাবি পূরণের আশ্বাস বেরোবি উপাচার্যের, কর্মকর্তাদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি স্থগিত

৯:৫৭ অপরাহ্ন | বুধবার, অক্টোবর ২৬, ২০১৬ Breaking News, শিক্ষাঙ্গন

এইচ.এম নুর আলম, বেরোবি প্রতিনিধি: রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে (বেরোবি) আপগ্রেডেশন-প্রমোশনসহ চার দফা দাবিতে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি স্থগিত করেছে কর্মকর্তারা। কর্মবিরতি শুরুর একদিনের মাথায় বুধবার দুপুরে উপাচার্য ড. এ কে এম নূর-উন-নবী কর্মকর্তাদের সাথে এক জরুরী বৈঠকে দাবিগুলো পূরণে আশ্বাস দিলে কর্মবিরতি ও অসহযোগিতা স্থগিত করে তাঁরা।

এর আগে গত মঙ্গলবার সকাল ১১ টা থেকে এই কর্মবিরতি শুরু করেন তারা। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত অসহযোগিতামূলক কর্মকান্ড চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন কর্মকর্তারা।

আন্দোলনরত কর্মকর্তারা জানান, কর্মকর্তাদের পদোন্নতি, বেতনহীন কর্মকর্তাদের বেতন ভাতাদি প্রদান, গেল বছর ভর্তি পরীক্ষায় দায়িত্ব পালনের জন্য বকেয়া পারিতোষিক প্রদান এবং কর্মকর্তাদের জন্য নির্ধারিত আবাসিক ডরমেটরি বরাদ্ধ দাবিতে এই কর্মবিরতি শুরু করেছিলো অ্যাসোসিয়েশন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কর্মকর্তা অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি গোলাম ফিরোজ সময়ের কণ্ঠস্বরকে বলেন, বুধবার (২৬ অক্টোবর) দুপুর একটার দিকে আমাদের সাথে জরুরী আলোচনায় বসে উপাচার্য আমাদেও দাবি পূরণে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত সময় নেন। এই সময়ের মধ্যে আমাদের দাবিগুলো পূরণের আশ্বাস দিলে আমরা ঐ সময় পর্যন্ত অসহযোগিতামূলক কর্মকান্ড স্থগিত করি।

berobi

২০১৩ সালের দিকে কর্মকর্তা-কর্মচারিদের বেতন প্রদানসহ আপদকালীন সমস্যা দূর করার জন্য থোক বরাদ্দ আসলেও অজ্ঞাত কারণে বেতন পরিশোধ করছেন না উপাচার্য। এমনকি ১০৮ জন কর্মকর্তার অনেকেরই তিন/চার বছর ধরে পদোন্নতি আটকিয়ে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছিলেন। এর আগে কর্মবিরতির প্রথম দিন (মঙ্গলবার) বিকাল ৪ টায় কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনায় বসার আশ্বাস দিয়ে দুপুরের পর তা বাতিল করেছিলেন উপাচার্য প্রফেসর ড. এ কে এম নূর-উন-নবী।

উল্লেখ্য, আগামী ১৩ নভেম্বর থেকে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তাই এ সময় কর্মকর্তাদের কর্মবিরতিতে পরীক্ষা কার্যক্রম বানচাল হলে উপাচার্য বিতর্কিত হতে পারে বলে দাবিগুলো আদায়ে আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। এমনই ধারণা করেছেন অনেকেই।