সংবাদ শিরোনাম

‘লঘু পাপে গুরু দণ্ড’; তিনটি মুরগি চুরির দায়ে দেড়লাখ টাকার জরিমানা চার তরুণের!কুড়িগ্রামের সবগুলো নদ-নদী শুকিয়ে গেছে, হুমকীতে জীব-বৈচিত্রহেফাজতের আরেক কেন্দ্রীয় নেতা গ্রেপ্তারমধুখালীতে বান্ধবীর সহায়তায় অচেতন করে দফায় দফায় ধর্ষণের শিকার নারী!বাসস্ট্যান্ডে প্রকাশ্যে চায়ের স্টলে ইতালি প্রবাসীকে কুপিয়ে হত্যাগোবিন্দগঞ্জে মর্মান্তিক সড়ক দূঘর্টনায় স্কুল শিক্ষকসহ একই পরিবারের ৪ জন নিহতময়মনসিংহে ব্রহ্মপুত্র নদের পানিতে ডুবে মারা গেলো ৩ শিশুমুহুর্তেই ভয়াবহ আগুন! স্কুলেই পুড়ে মরলো ২০ শিশু শিক্ষার্থী!সাবেক আইনমন্ত্রী আব্দুল মতিন খসরু আর নেইসব রেকর্ড ভেঙে চুরমার, একদিনেই ৯৬ জনের মৃত্যু

  • আজ ১লা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

গাইবান্ধায় ২ ওয়ার্ডে সদস্য পদে ভোট গ্রহণ স্থগিত

২:১০ অপরাহ্ন | বুধবার, ডিসেম্বর ২৮, ২০১৬ দেশের খবর, রংপুর

ফরহাদ আকন্দ, গাইবান্ধা প্রতিনিধি: গাইবান্ধায় জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৮ ও ১০ নং ওয়ার্ডে ভোট গ্রহণ স্থগিত রয়েছে। সাধারণ সদস্য (পুরুষ) পদে দুই প্রার্থীর বৈধতা নিয়ে সন্দেহ থাকায় ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়।

jala-nir

স্থগিত হওয়া ভোগ কেন্দ্র দুটি হলো – সাদুল্যাপুর উপজেলার কান্তনগর বিণয় ভুষণ উচ্চ বিদ্যালয় (৮ নং ওয়ার্ড) ও গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সাপমারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (১০ নং ওয়ার্ড) ভোট কেন্দ্র।

গাইবান্ধা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শাহিনুর রহমান প্রমাণিক জানান, সাদুল্যাপুর উপজেলার ৮নং ওয়ার্ডের সদস্য পদের প্রার্থী তাহেদুল ইসলাম তৌহিদ (ঘুড়ি) মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। তিনি ঋণ খেলাপি হওয়ায় যাচাই-বাছাই করে তার প্রার্থীতা বাতিল করা হয়। পরে তিনি উচ্চ আদালত থেকে প্রার্থী বৈধতার কাগজপত্র দাখিল করেন।

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ১০ নং ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য প্রার্থী মুসফিকুর রহমান চৌধুরী উজ্জ্বল একজন সরকারি ডিলার। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইকালে তার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। পরে তিনিও উচ্চ আদালতের আদেশে প্রার্থী বৈধতার কাগজপত্র জমা দেন।

কিন্তু তাদের প্রার্থীর বৈধতার বিষয়টি সন্দেহ হওয়ায় উচ্চ আদালতে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে আপিল করা হয়। আপিলের পরিপ্রেক্ষিতে উচ্চ আদালত ৫ জানুয়ারি শুনানির দিন ধার্য্য করেন। এ কারণে জেলা রিটানিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক আবদুস সামাদ দুই কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ স্থগিত করেন।

এ সংক্রান্ত গণ বিজ্ঞপ্তি দুটি কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। তবে আপিল শুনানির পর দুই কেন্দ্রে পরে নির্বাচন অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

সাদুল্যাপুর উপজেলার কান্তনগর বিণয় ভূষণ উচ্চ বিদ্যালয়ের দায়িত্বরত প্রিজাইটিং কর্মকর্তা মোঃ ইউসুব আলী জানান, সাধারণ সদস্য পদ ছাড়া চেয়ারম্যান ও সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ভোট গ্রহণ চলছে।

এদিকে, জেলার ১৫ কেন্দ্রে সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ চলছে। সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত গাইবান্ধা জেলার সাত উপজেলা ১১১৭ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

এ নির্বাচনে পাঁচজন চেয়ারম্যান প্রার্থী, সদস্য পদে ৬৮ এবং সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।