• আজ ৩রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

আজ থেকে তালিকাভুক্ত পর্ন সাইটগুলো বন্ধে কাজ শুরু করেছে বিটিআরসি

৫:২৪ অপরাহ্ন | বুধবার, ডিসেম্বর ২৮, ২০১৬ জাতীয়

স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা: দেশের সামাজিক রীতিনীতি ও মূল্যবোধ বিবেচনায় নিয়ে পর্নোগ্রাফি সাইটগুলো বন্ধের ব্যাপারে দৃঢ় সংকল্পের কথা জানিয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম দেশি-বিদেশি ৫০০ পর্ন সাইট বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছেন । বুধবার থেকে তালিকাভুক্ত পর্ন সাইটগুলো বন্ধে কাজ শুরু করেছে বিটিআরসি।

এ সংক্রান্ত একটি তালিকা বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)’র মাধ্যমে বাংলাদেশের বিভিন্ন ইন্টারনেট সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে বলেও জানা গেছে।

tarana

মন্ত্রী বলেন, ‘বিটিআরস’র মাধ্যমে এ সংক্রান্ত কঠোর নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে। তারা যেন দেশের আইএসপিগুলোকে নির্দেশ মানার জন্য জোর তাগিদ দেন।’

তিনি বলেন, ‘প্রথম দফায় আমি ৫০০ পর্ন সাইটের তালিকা করেছি। পরে এই তালিকায় আরো ওয়েব সাইটের ঠিকানা যুক্ত হবে’।

তিনি আরও বলেন, ‘পর্ন সাইটগুলোর ৬০ থেকে ৮০ শতাংশ বিদেশ থেকে অপারেট করা হয়। পর্যায়ক্রমে সেইসব সাইটও নিষিদ্ধ করা হবে।’

এর আগে ১৩ ডিসেম্বর পর্ণ সাইটে প্রবেশকারীদের বিষয়ে স্ট্যাটাসে তারানা হালিম বলেন, ‘দুঃখ এটিই যে এমন তালিকা করা হবে, এ ধরনের ভিত্তিহীন রটনা পড়ে সত্যাসত্য যাচাই না করেই নিজ নিজ ফেসবুক আইডিতে কিছু কিছু ব্যক্তি নেতিবাচক পোস্ট দিতে শুরু করলেন, ট্রল করা শুরু করলেন। সভ্যতা, ভব্যতার মাত্রাও অতিক্রম করলেন অনেকেই। আমরা হয়তো কোনো পদে আছি—কিন্তু তারও আগে আমরা মানুষ। আপনাদের সবার মতো কষ্ট-দুঃখ, মান-অপমানবোধ আমাদেরও আছে। আমরা ভিন গ্রহের বাসিন্দা নই। রক্ত-মাংসের মানবিকবোধসম্পন্ন আবেগময় মানুষ আমরাও। সেটি কি ভাবেন?’

উল্লেখ্য সব পর্নো সাইট বন্ধ করা সম্ভব কি না—এ প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেছিলেন , ‘এ কথা মনে রাখতে হবে যে আমরা শতভাগ সাইট বন্ধ করতে পারব না। কিন্তু যদি ৮০ শতাংশ বন্ধ করতে পারি, তাহলে সেটা হবে আমাদের জন্য বিরাট অর্জন।’

এর আগে পর্নোগ্রাফি ও আপত্তিজনক ‘কনটেন্ট’ ছড়ায়, এমন সাইটগুলোর একটি তালিকা তৈরির জন্য গত ২৮ নভেম্বর বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যানকে প্রধান করে একটি কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিকে পর্নোগ্রাফি ও সাইবার স্পেসে নেতিবাচক বিষয়গুলো সম্পর্কে একটি সুপারিশমালা প্রণয়ন করতে বলা হয়েছে।