সংবাদ শিরোনাম

ছাত্রলীগ নেতার প্যান্ট চুরির ভিডিও ভাইরাল!পাটগ্রামে ইউএনও’র উপর হামলা, আটক ৬আগের সব রেকর্ড ভেঙ্গে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ৮৩ জনেরশফী হত্যা মামলা: মামুনুল-বাবুনগরীসহ ৪৩ জনকে অভিযুক্ত করে প্রতিবেদনখালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় সারাদেশে দোয়া কর্মসূচিরোহিঙ্গা শিবিরে ফের অগ্নিকান্ডসালথায় তান্ডব: এসিল্যান্ডের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগের সত্যতা মিলেনিশাহজাদপুরে কৃষকদের মাঝে হারভেস্টার মেশিন বিতরণচাঁদপুরে গণমাধ্যম সপ্তাহের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পেতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপিশ্রমিকদের যাতায়াতের ব্যবস্থা না করলে আইনি পদক্ষেপ : শ্রম প্রতিমন্ত্রী

  • আজ ৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আক্ষেপ জানিয়ে ম্যাচ শেষে যা বললেন মাশরাফি

২:৪৩ অপরাহ্ন | শনিবার, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৬ খেলা, স্পট লাইট

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক- বাংলাদেশের সফলতম অধিনায়কের মুখটা আজ ভীষণ বিবর্ণ। অধিনায়কত্বের ক্যারিয়ার এমন বাজে অভিজ্ঞতা খুব কমই পেতে হয়েছে তাকে।

সিরিজ হারার পর হোয়াইটওয়াশ- কে নেবে এই দায়? যে মানুষটি নিজের সর্বস্ব উজাড় করে দেয় মাঠে তাকে নিশ্চয়ই দোষ দেবে না দর্শকরা। মুস্তাফিজের অনুপস্থিতিতে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে তিনি ৩ উইকেট নিয়েছিলেন। তবে কেন এমন বাজেভাবে পরাজয়?

ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ম্যাশ বললেন বহুদিন পর এই সিরিজে বাংলাদেশ একটি দল হয়ে খেলতে পারেনি। সবকিছুই কেমন যেন ছন্নছাড়া ছিল। অধিনায়কের ভাষায়, “আমরা কিছু ভালো সুযোগ তৈরি করেছিলাম। কিন্তু দল হিসেবে খেলতে না পারায় সফলতা পাইনি। “

140833mash__pic‘আমরা পাঁচ বছর পর এখানে খেলছি। কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার একটি বিষয়ও ছিল। এটা কঠিন ব্যাপার। তবে আমরা উন্নতি করেছি। এ সফর এখনই শেষ হয়নি। টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ আছে। আমাদের বিশ্বাস আমরা শক্তিভাবে ফিরে আসব।’-যোগ করেন মাশরাফি।

ব্যাটিং নিয়ে গত ম্যাচেও আক্ষেপ জানিয়েছিলেন মাশরাফি। তৃতীয় ম্যাচ শেষেও তার কণ্ঠে সেই আক্ষেপ থাকল। বললেন, “প্রথম ম্যাচ হেরে গেলেও আমরা ভালো ব্যাটিং করেছিলাম। কিন্তু শেষ দুই ম্যাচে হঠাৎ করে ধস নেমছে। “

এই ধসের কারণ অনুসন্ধান যত দ্রুত করবে বাংলাদেশ ততই মঙ্গল। এখনও টি-টোয়েন্টি এবং ওয়ানডে সিরিজ বাকী। তাই ঘুরে দাঁড়ানোর যথেষ্ট সুযোগ আছে।

তিন ওয়ানডের কোনোটিতেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলতে পারেনি বাংলাদেশ। প্রথম ওয়ানডেতে বেহিসেবি রান দিয়েছে বোলাররা। পাহাড়সমান রান করতে গিয়ে দিশেহারা হয়েছেন ব্যাটসম্যানরা। দ্বিতীয় ম্যাচে বোলাররা ব্যাটিং স্বর্গ উইকেটে কিউই ব্যাটসম্যানদের আটকে দিলেও ব্যাটসম্যানরা নিজেদের কাজ করতে পারেননি। তৃতীয় ম্যাচেও একই ভুল করেছেন ব্যাটসম্যানরা। নিজেদের ভুলে নিজেদের উইকেট প্রতিপক্ষকে ‘উপহার’ দিয়েছেন সাকিব, মাহমুদউল্লাহ, তামিম ইকবালরা।

ব্যাটিং ও বোলিংয়ের ব্যর্থতা ফুটে উঠেছে ফিল্ডিংয়ে। প্রথম ম্যাচে জ্বরাগ্রস্থ ফিল্ডিংয়ে ম্যাচ হারতে হয়েছে বাংলাদেশকে। ক্যাচ মিস ও মিস ফিল্ডিংয়ের কারণে বড় রানের সুযোগ পায় কিউইরা। পরাজয়ে বছর শেষ করলেও নতুন বছরে নতুন প্রেরণা, নতুন আশা নিয়ে মাঠে নামতে মুখিয়ে মাশরাফি এন্ড কোং। নেপিয়ারে আগামী ৩ জানুয়ারি দুই দলের প্রথম টি-টোয়েন্টি শুরু হবে। শেষ দুই টি-টোয়েন্টি খেলবে ৬ ও ৮ জানুয়ারি।