• আজ বুধবার। গ্রীষ্মকাল, ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। রাত ১১:৪৬মিঃ

আমন ধানে চিটা, ফলন বিপর্যয়ের আশঙ্কায় কৃষকরা

৯:৫৯ পূর্বাহ্ন | বুধবার, জানুয়ারী ৪, ২০১৭ খুলনা, দেশের খবর, স্পট লাইট

মো:নজরুল ইসলাম, ঝালকাঠি::

শিষ ধরা সময়ে প্রাকৃতিক দূর্যোগের প্রভাবে মাঠের অধিকাংশ গাছ মাটিতে শুয়ে পড়ায় বেশিরভাগ ধানই চিটা হয়ে গেছে। ফলে আমনের ফলন বিপর্যয়ের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

এতে লোকসানের মুখে পড়েছেন কৃষকরা। তবে কৃষি বিভাগের দাবি, ধানে চিটা হলেও এতে ফলনের ওপর তেমন প্রভাব ফেলবে না।

উপকূলীয় জেলা ঝালকাঠিতে এখন চলছে আমন ধান কাটার উৎসব। কৃষকরা সোনালী ধান ঘরে তুলতে ব্যস্ত। চলছে ধান কাটা ও মাড়াইয়ের কাজ। তবে তাদের মুখে নেই হাসি।

নভেম্বর মাসে শিষ আসার সময়ে দু’দফা নিম্নচাপের প্রভাবে বেশিরভাগ বিশেষ করে আগাম জাতের ধানগাছ মাটিতে শুয়ে পড়েছিল। এতে এই জাতের ধানে আর্ধেকেরও বেশি চিটা হয়ে গেছে। ফলে লোকসানের মুখে পড়েছেন কৃষকরা।

farmer-bangladesh

বাড়াইকরণ গ্রামের কৃষক মোফাজ্জেল হোসেন সময়ের কণ্ঠস্বরকে বলেন, ১৫ হাজার টাকা খরচ করে বিঘা প্রতি ৮ থেকে ১০ হাজার টাকা ক্ষতির আশঙ্কা করছেন তারা। কৃষক দেলোয়ার হোসেনের অভিযোগ, কৃষি বিভাগের লোকজন মাঠে না এসেই অফিসে বসে কাগজে-কলমে ধানের বাম্পার ফলন দেখেন। এছাড়া সরকারি সহায়তাও প্রকৃত কৃষকরা পাননি বলেও অভিযোগ রয়েছে স্থানীয় কৃষি বিভাগের বিরুদ্ধে।

ঝালকাঠি কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরে উপ-পরিচালক শেখ আবু বকর সিদ্দিক, চিটার কথা শিকার করলেও কৃষকদের এ অভিযোগ অস্বীকার করে সময়ের কণ্ঠস্বরকেজানান, মাঠকর্মীরা নিয়মিত কৃষকদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন। চলতি মৌসুমে ঝালকাঠি জেলায় ৫০ হাজার ৭৭৫ হেক্টর জমিতে আমন আবাদ হয়েছে। যা থেকে উৎপাদন লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৯৪ হাজার ১৬৯ মে. টন।