• আজ বুধবার। গ্রীষ্মকাল, ৮ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ২১শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। রাত ১০:৫৩মিঃ

‘আমরা বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়াই, আর বিএনপি ক্ষমতায় এসে তা কমায়’

১:১৩ অপরাহ্ন | বুধবার, জানুয়ারী ৪, ২০১৭ Breaking News, ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর– নিজ সরকারের উন্নয়নের ফিরিস্তি তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘ক্ষমতায় থাকাকালে আমরা বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়িয়ে দিয়ে যাই, আর বিএনপি ক্ষমতায় এসে তা কমায়।

তিনি বলেন, আমরা খাদ্যে দেশকে স্বয়ংসম্পূর্ণ করেছি। আর বিএনপি ক্ষমতায় এসে খাদ্য ঘাটতির দেশে পরিণত করেছে।

বুধবার গণভবন থেকে রংপুর বিভাগের আট জেলার তৃণমূল পর্যায়ের নাগরিকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স মতবিনিময়ে এই কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। জেলাগুলো হলো- রংপুর, দিনাজপুর, নীলফামারী, কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও ও গাইবান্ধা।

sb-o-780x450প্রধানমন্ত্রী বলেন, পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর হাতে আমাদের মেয়েদের তুলে দিয়েছে- হত্যায় সহযোগিতা করেছে, তাদের হাতে ক্ষমতা তুলে দিয়েছে বিএনপি। আমরা যেনো মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে না পারি সেটাই লক্ষ্য ছিলো।

তিনি আরও বলেন, ২১ বছর পর আমরা ক্ষমতায় এসে বিভিন্ন ভাতা চালু করেছি, খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করে খাদ্য নিরাপত্তাও নিশ্চিত করেছি। চিকিৎসা সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে কমিউনিটি ক্লিনিক তৈরি করি। কিন্তু বিএনপি ফের ক্ষমতায় এসে সব বন্ধ করে দেয়। খাদ্য ঘাটতি আবার দেখা দেয়, স্বাক্ষরতার হার কমে যায়, বিদ্যুৎ উৎপাদন কমে যায়।

শেখ হাসিনা বলেন, উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় নতুন প্রজন্মকে যুগোপযোগী শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হবে। তিনি বলেন, আমরা চাই দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গঠন করতে। এর জন্য শিক্ষার বিকল্প নেই।

এ সময় গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে সরকারদলীয় সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যায় জড়িতদেরকে যেভাবেই হোক খুঁজে বের করে শাস্তি দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ‘একজন সংসদ সদস্যকে হত্যা- এটা কখনও মেনে নেয়া যায় না। যারাই এর সঙ্গে জড়িত, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছি, যেভাবেই হোক তাদেরকে খুঁজে বের করতে হবে।… এ ধরনের হত্যাকাণ্ড কখনও আমরা মেনে নিতে পারি না, এর বিচার হবেই বাংলার মাটিতে। এদের উপযুক্ত শাস্তি দিতে হবে।