সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ৪ঠা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মওদুদের নাইকো মামলা শুনতে বিব্রত হাইকোর্ট

১:০২ অপরাহ্ন | বুধবার, জানুয়ারী ৪, ২০১৭ Breaking News, জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর – বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের বিরুদ্ধে নাইকো দুর্নীতি মামলার কার্যক্রম স্থগিত চেয়ে করা রুল শুনতে বিব্রতবোধ করেছেন হাইকোর্ট।

বুধবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই মামলাটি শুনতে বিব্রতবোধ করেন।

নিয়ম অনুযায়ী, বিষয়টি এখন প্রধান বিচারপতির কাছে যাবে। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহা এই রুলের শুনানির জন্য নতুন কোনো বেঞ্চে পাঠাবেন।

আদালতে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ নিজেই শুনানি করেন। অন্যদিকে দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশিদ আলম খান।

highcort-moudud

গত ১১ ডিসেম্বর মওদুদ আহমদের বিরুদ্ধে নাইকো দুর্নীতি মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে হাইকোর্টের দেয়া আদেশ বহাল রাখেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। একই সঙ্গে হাইকোর্টের জারি করা রুল ১৯ জানুয়ারির মধ্যে বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চে নিষ্পত্তির নির্দেশও দেয়া হয়। সেই রুল শুনতেই বিব্রতরোধ করেন আদালত।

গত বছরের পয়লা ডিসেম্বর বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের বিরুদ্ধে দায়ের করা নাইকো দুর্নীতি মামলার কার্যক্রম আট সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেন হাইকোর্ট। সেদিন রুলও জারি করা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রে নাইকো নিয়ে একটি সালিশি মামলা চলার কারণে শুধু মওদুদ আহমদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারিক আদালত তার বিরুদ্ধে এই মামলার কার্যক্রম স্থগিত করেন।

ঢাকার বিশেষ জজ আদালতে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ নাইকো মামলার অন্য আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের জন্য দিন ধার্য রয়েছে।

এ অবস্থায় ফৌজদারি কার্যবিধির দুটি ধারায় আবেদন জানিয়ে মওদুদ আহমেদ বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে নাইকোর যে সালিশি মামলা চলছে তা শেষ না হওয়া পর্যন্ত এই মামলার কার্যক্রম স্থগিত রাখা হোক। একই সঙ্গে কিছু নথিপথ দাখিলেরও আবেদন করেন তিনি।

গত ১৬ আগস্ট মামলার কার্যক্রম স্থগিত চেয়ে মওদুদ আহমেদের করা আবেদন খারিজ করে দেন বিচারিক আদালত। পরে এর বিরুদ্ধে তিনি হাইকোর্টে রিভিশন মামলা করেন।