দুঃসাহসীক স্টান্ট: সবার সামনেই আস্ত এই মানুষটিকে গিলে ফেললো অ্যানাকোন্ডা ! (ভিডিও)

১:৪২ অপরাহ্ন | সোমবার, জানুয়ারী ৩০, ২০১৭ চিত্র বিচিত্র, স্পট লাইট

চিত্র বিচিত্র ডেস্ক, সময়ের কণ্ঠস্বর – একদল মানুষের সামনেই আস্ত একটা মানুষকে গিলে ফেললো অ্যানাকোন্ডা। এদিকে পুরো ঘটনাটির রেকর্ডিং করলেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

আসলে টিআরপি বাড়ানোর যুগে মানুষ কত কিছুই তো করেন। ডিসকভারি চ্যানেলের পল রসোলিও টিআরপি বাড়ানোর জন্য দুঃসাহসিক এক স্টান্ট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। ঠিক করেছিলেন, নিজেকে বিশাল বড় একটা অ্যানাকোন্ডার সামনে উৎসর্গ করবেন। যেমন কথা তেমনই কাজ। ভয়ানক এই কাজটি করে ফেললেন তিনি।

man-eaten-by-anaconda

অ্যানাকোন্ডা যখন পলকে এক গ্রাসে হজম করার তীব্র চেষ্টা চালাচ্ছে ঠিক তখনই অন্য ক্রু মেম্বাররা সেই দৃশ্যই ভিডিও রেকর্ডিং করতে থাকেন। কিন্তু টিআরপি’র খেলায় মজে কখন যে নিজের বিপদ ডেকে এনেছেন পল, তা তিনি নিজেও বুঝতে পারেননি।

এদিকে পল রসোলিকে যখন প্রায় এক তৃতীয়াংশ গিলে ফেলছে অ্যানাকোন্ডা, তখন তাকে উদ্ধার করতে ছুটে আসেন বাকি ক্রু মেম্বাররা। অ্যানাকোন্ডার সঙ্গে রীতিমত যুদ্ধ চালিয়ে পলকে নিশ্চিত মৃত্যুর হাত থেকে উদ্ধার করেন তার সহকর্মীরা।

এই একটা প্রাণীকে নিয়ে যত উপকথা আর ভয়ংকর গুজব আছে, পৃথিবীর আর কোন প্রাণীই তার ধারেকাছেও যাবে না, অ্যানাকোন্ডা যেন এক অশরীরি কিংবদন্তী। নিঃশব্দ চলাচল, দৈর্ঘ্য, অস্বাভাবিক শক্তি আর অসামাজিক হিংস্র স্বভাব অ্যানাকোন্ডার।

নদী বা জলাভূমির ঘোলা পানিতে বা নদীর নিচের কোন জলজ আগাছা ঘেরা খাদে, দিনের পর দিন লুকিয়ে থাকতে পারে সেখানে। ধৈর্য্য ধরে অপেক্ষা করে শিকারের, পানির নিচে দম না নিয়ে থাকতে পারে ১০ মিনিটেরও বেশি, মাথাটা সামান্য জাগিয়ে শিকারের সন্ধানে সাঁতরে বেড়ায়, বেশিরভাগ সময়েই তাই একদম গায়ের কাছে এসে পড়লেও শিকার টেরই পায় না মৃত্যু তার কত কাছে।

অন্য সাপের তুলনায় ব্যতিক্রম, অ্যানাকোন্ডার দাঁত ২ সারিতে বসানো। ঝাঁপিয়ে পড়ার মুহূর্তেই কামড়ে ধরে শিকারকে যাতে ছুটে না যায়, এরপর বোয়া গোষ্ঠীর এই সাপ (অ্যানাকোন্ডার আরেক নাম ওয়াটার বোয়া) শিকারকে পেঁচিয়ে ধরে, যতবার আক্রান্ত প্রাণী শ্বাস ছাড়ে ততবারই বাঁধন আরো শক্ত করে শ্বাস নেয়া অসম্ভব করে দেয়, মৃত শিকারকে এরপরে আস্তে আস্তে গিলে খায়।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুণ