শেষ হলো দু’দিনব্যাপী পিঠামেলা, ভাঙল গণ-মানুষের মিলনমেলা

১:০৮ পূর্বাহ্ন | বুধবার, ফেব্রুয়ারী ১, ২০১৭ খুলনা, দেশের খবর

fy


সৈয়দ খায়রুল আলম, নড়াইল প্রতিনিধিঃ

শেষ হলো পিঠামেলা, ভাঙল গণ-মানুষের মিলনমেলা। রোববার (২৯ জানুয়ারি) রাত ১১টার দিকে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে নড়াইলের আমাদা আদর্শ কলেজ চত্বরে দু’দিনব্যাপী পিঠামেলা শেষ হয়েছে। সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সোহরাব হোসেন বিশ্বাস। কলেজ অধ্যক্ষ আল ফয়সাল খানের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সিদ্দিকুর রহমান, লোহাগড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সৈয়দ ফয়জুল আমির লিটু, লোহাগড়া পৌরসভার মেয়র আশরাফুল ইসলাম, জেলা জজকোর্টের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট ইমদাদুল হক, নিরাপদ সড়ক চাই নিসচার জেলা সভাপতি সৈয়দ খায়রুল আলম,জেলা পরিষদের সদস্য জেসমিন খানম, সুলতান মাহমুদ বিপ্লব, এবিএনকে আদর্শ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অশোক রায় প্রমুখ। পরে অতিথিরা কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার প্রদান করেন।

এদিকে, রাত অবধি পিঠা বেচাকেনা জমে উঠে। রসালো পিঠাস্টলের বিক্রেতা একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী সাথী, লিজা, তন্নি, মাসুম, আজমিন, সাগরিকা, সোনিয়া জানান, দু’দিনে বেচাকেনা বেশ ভালো হয়েছে। রাত জেগে পিঠা তৈরির কষ্ট সার্থক হয়েছে তাদের। রূপসী পিঠাঘরের বিক্রেতা সালাউদ্দীন, পল্লব ও রিয়াজুল বলেন, প্রত্যাশার চেয়েও বেশি পিঠা বিক্রি করেছি। বিশেষ করে সমাপনী দিনে বেশি বিক্রি হয়েছে। মনিকা পিঠাঘরের শ্রাবণী, জাহিমা, রাবেয়া, ইরানি, রোকেয়া ও রাশেদ বলেন, আমরা সবাই মিলে অনেক মজা করেছি। দু’দিনের পিঠামেলা গণমানুষের মিলন মেলায় পরিণত হয়েছে।

এইচএসসি পরীক্ষার্থী মারুফ, আশিক ও শাহনাজ বলেন, পিঠামেলার পাশাপাশি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে নৃত্য, সঙ্গীত, কৌতুকসহ বিভিন্ন পরিবেশনা আমাদের মুগ্ধ করেছে। আমাদা আদর্শ কলেজের অধ্যক্ষ আল ফয়সাল খান বলেন, এবারের পিঠামেলায় ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। আমাদের শিক্ষার্থীরা ১১টি স্টলে ৭০ প্রকার পিঠার আয়োজন করে। আবহমান বাংলার ঐহিত্য ও সংস্কৃতি সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে ২০১৪ সাল থেকে পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ ধরণের সহশিক্ষা কার্যক্রম শিক্ষার্থীদের সামাজিক ও নৈতিক দায়িত্ববোধকে আরো শক্তিশালী করবে বলে আমাদের বিশ্বাস।

প্রসঙ্গত, শনিবার (২৮ জানুয়ারি) দুপুরে ফিতা কেটে পিঠামেলার উদ্বোধন করেন নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ হাফিজুর রহমান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রশাসনিক কর্মকর্তা কাজী শাহাজাহান, কলেজ অধ্যক্ষ আল ফয়সাল খান, কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সদস্য আসাদুজ্জামান মন্ডল, আমাদা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নির্মল কুন্ডু, এবিএনকে আদর্শ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অশোক রায়, আমাদা দাখিল মাদরাসার সহ-সুপার মাওলানা বিল্লাহ হোসাইন, আমাদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ঝর্ণা বেগম প্রমুখ। এদিকে, গান গেয়ে দর্শক শ্রোতাদের মুগ্ধ করেন খালিদ শাওন, সবুজ সুলতান, ফারজানা, মুন্নি ও পপি। নৃত্য পরিবেশন করেন মুন, রাজদীপা মুখার্জি, সামিরা প্রমুখ। কবিতা আবৃত্তি করে রতœদীপা মুখার্জি।