মাদারীপুরে আজ থেকে শুরু হয়েছে ৩ দিন ব্যাপী সরস্বতী পূজা


মেহেদী হাসান সোহাগ, মাদারীপুর প্রতিনিধি: বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যে দিয়ে হাজার বছরের ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে আজ ১ ফেব্রুয়ারী বুধবার থেকে মাদারীপুরে শুরু হয়েছে ৩ দিনব্যাপী বিদ্যার দেবী শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজা।

m

প্রতিমা শিল্পীরা ইতোমধ্যেই তাদের প্রতিমা তৈরি কাজ শেষ করেছেন। ঢাক-ঢোল, শঙ্খ ধ্বণি, উলু ধ্বণি আর বাদ্যযন্ত্রের তালে তালে জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে হাজারো ভক্ত-অনুরাগীরা অংশ নিয়েছে তিন দিন ব্যাপী শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজায়। এ উপলক্ষে তিন দিন ব্যাপী ব্যাপক অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করা হয়েছে।

এর মধ্যে রয়েছে মঙ্গল ঘট স্থাপন, পূজা, প্রার্থনা, অঞ্জলি প্রদান, আলোচনা সভা, মঙ্গল শোভাযাত্রা, শ্রীমদ্ভগবদ গীতা পাঠ, শিক্ষার্থীদের মধ্যে গীতা দান, চিত্রাংকণ প্রতিযোগিতা, সঙ্গীতানুষ্ঠান, কবিগান ঘোরদৌড় প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠান।

জানা যায়, আজ ১ ফেব্রুয়ারী বুধবার শ্রী শ্রী পঞ্চমীর মধ্যে দিয়ে মাদারীপুর জেলার চারটি উপজেলার সর্বত্র শুরু হয়েছে শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজা। একদিনের পূজা হলেও অনুষ্ঠান চলবে তিন দিন পর্যন্ত। মাদারীপুরের ঐতিহ্যবাহী সরস্বতী পূজায় অংশ গ্রহন করতে বাংলাদেশ সহ পাশর্বতী ভারত ও নেপাল থেকে অনেকেই মাদারীপুরে এসে উপস্থিত হয়েছেন বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে। তিনদিনের অনুষ্ঠানে সকল ধর্মের মানুষের মিলন মেলায় পরিনত হবে।

মাদারীপুর জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও পূজার তিন দিন পর ৩ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার সন্ধ্যার পরে শহরে তিন শতাধিক ক্লাব ও সংগঠন তাদের সরস্বতী দেবীর প্রতিমা নিয়ে বর্ণাঢ়্য শোভাযাত্রা সহকারে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে শহরের পুরান বাজার মেলবোর্ণ প্লাজার সামনে এক আলোচনা সভায় মিলিত হবে।

soro

১৯৭১ সনের রনাঙ্গনের বীর মুক্তিযোদ্ধা খলিলুর রহমান খান বলেন, সরস্বতী পূজা হচ্ছে পূজারীদের। আর মাদারীপুরের তিন দিন ব্যাপী অনুষ্ঠান হচ্ছে জাতি- ধর্ম- বর্ণ-গোত্র নির্বিশেষে সকলের। তিনি বলেন, পৃথিবী কবে লয় হবে তা জানিনা। তবে মাদারীপুরের এই ঐতিহ্যবাহী সরস্বতী পূজার এই অনুষ্ঠান পৃথিবী লয়ের পূর্ব পর্যন্ত ধরে রাখার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

মাদারীপুর জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক প্রানতোষ মন্ডল জানান, এ বছর মাদারীপুর জেলায় পারিবারিক, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন সংগঠন মিলিয়ে প্রায় ৩ হাজার মন্ডপে আয়োজন করা হবে বিদ্যার দেবী শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজার। এ বছর মাদারীপুর সদর উপজেলায় ১০০টি, রাজৈরে ১৫০টি, শিবচরে ৫৫টি ও কালকিনি উপজেলায় ৮০টি মন্ডপে ব্যাপক আয়োজন করা হয়েছে তিন দিন ব্যাপী শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজার। এই উপলক্ষে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানে আলোকসজ্জা ও বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে। তিনব্যাপী অনুষ্ঠানের সমাপনী দিনের পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান এমপি থাকার সম্ভাবনা রয়েছে।

মাদারীপুর পুলিশ সুপার মোঃ সরোয়ার হোসেন সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজা শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করার লক্ষে পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ, পূজারী ও সুধীজনের সাথে মতবিনিময় করা হয়েছে। পূজা মন্ডপগুলোতে তিন স্তর বিশিষ্ট নিরাপত্তা ব্যাবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। পোষাকী পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোষাকে পুলিশ থাকবে। থাকবে ভ্রাম্যমান আদালতও। বর্ণাঢ্য শোভা যাত্রার পুলিশ কড়া নিরাপত্তার মধ্যে দিয়ে সম্পন্ন করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

◷ ১২:৪০ অপরাহ্ন ৷ বুধবার, ফেব্রুয়ারী ১, ২০১৭ ঢাকা, দেশের খবর