সংবাদ শিরোনাম

রাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যেতে তাবিথকে ‘বাধা’গাজীপুরে সকল ট্রেনের যাত্রাবিরতির দাবিতে অবস্থান ধর্মঘটচমেকে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, ব্যাপক ভাঙচুর‘আত্মত্যাগের মধ্যেই হলো একজন মানুষের জীবনের স্বার্থকতা’: উপাচার্য ড. হারুন-অর-রশিদদণ্ডিত আসামি দিয়ে সুবর্ণ জয়ন্তী উদ্বোধন করে মুক্তিযুদ্ধের প্রতি অসম্মান করেছে বিএনপিবাংলাদেশ এখন চীন-ভারত-মালয়েশিয়ার কাতারে : অর্থমন্ত্রীপেট্রাপোল বন্দরে বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় ৫ হাজার ট্রাক !ইসিকে হেয় করতে যা দরকার সবই করছেন মাহবুব তালুকদার: সিইসিআশুলিয়ায় ঝুট ব্যবসাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষ, আহত-১০ভাসমান হাসপাতাল ‘জীবন তরী’এখন ঝালকাঠির সুগন্ধা নদী তীরে

  • আজ ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ক্রিকেটার আরাফাত সানির বিরুদ্ধে এবার তৃতীয় মামলা, আসামি করা হয়েছে তার মাকেও

২:০২ অপরাহ্ন | বুধবার, ফেব্রুয়ারী ১, ২০১৭ Breaking News, আলোচিত বাংলাদেশ, খেলা, স্পট লাইট

সময়ের কণ্ঠস্বর – ক্রিকেটার আরাফাত রহমান সানির বিরুদ্ধে তৃতীয় মামলা দায়ের করেছেন তার ‘কথিত’ স্ত্রী নাসরিন সুলতানা। এবারের মামলাটি যৌতুকের জন্য মারধরের ঘটনায়। আদালত মামলাটি মোহাম্মদপুর থানাকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

আজ বুধবার দুপুর ১২টার দিকে ঢাকার ৪ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক এস এম রেজানুর রহমানের আদালতে এ মামলাটি দায়ের করেন ওই তরুণী। মামলায় আরাফাত সানির মা নার্গিস আক্তারকেও আসামি করা হয়েছে।

গত ৫ জানুয়ারি আরাফাত সানির বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনে মোহাম্মদপুর থানায় একটি মামলা করেছিলেন এই তরুণী। পরে তিনি ২০ লাখ টাকা যৌতুক দাবির অভিযোগে ২০ জানুয়ারি ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে আরেকটি মামলা করেন তিনি। আদালত নালিশি এই মামলা আমলে নিয়ে আরাফাত সানির বিরুদ্ধে সমন জারি করেন। আগামী ৫ এপ্রিল সমন জারিসংক্রান্ত প্রতিবেদন দাখিল করার আদেশ দিয়েছেন আদালত।

sani-criketer

আজকের মামলার বিষয়ে এই তরুণীর আইনজীবী কামাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, ২০১৪ সালের ৪ ডিসেম্বর এই নারীর সঙ্গে আরাফাত সানির বিয়ে হয়। দেনমোহর ছিল পাঁচ লাখ টাকা। বিয়ের পর মিরপুরের একটি বাসায় তারা সংসার করেন। কিন্তু ছয় মাস পর আরাফাত সানির মা নারগিস আক্তারের পরামর্শে সানি ওই নারীর কাছে ২০১৫ সালের ১৫ জুলাই ২০ লাখ টাকা দাবি করেন। তখন ওই টাকা না দিলে তাকে সংসার করতে দেবেন না বলে হুমকি দেন নারগিস আক্তার।

কামাল উদ্দিন বলেন, গত ২২ জানুয়ারি মোহাম্মদপুর থানাসংলগ্ন রাস্তায় আরাফাত সানির মা অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে এই তরুণীর চুল ধরে মারধর করেন এবং পোশাকের একটি অংশ ছিঁড়ে ফেলেন। তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনে করা মামলাটিতে সানি রিমান্ড শেষে এখন কারাগারে আছেন। গত ১৯ জানুয়ারি সানিকে ঢাকার আমিনবাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।