‘কাটার মাস্টার’ মুস্তাফিজকে দলে না রাখার ব্যাপারে ব্যাখা দিলেন কোচ হাতুরুসিংহে

৭:২২ অপরাহ্ন | বুধবার, ফেব্রুয়ারী ১, ২০১৭ Breaking News, খেলা, স্পট লাইট

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক – দেশের মাটিতে এই ভারতের বিপক্ষেই আগুন ঝড়ানো বোলিং করে ক্রিকেট বিশ্বের নজরে এসেছিলেন বিশ্ময় বালক মোস্তাফিজুর রহমান। প্রায় দুই বছর পর আবারও বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ সেই ভারত। কিন্তু খেলছেন না সেই মোস্তাফিজুর রহমান। কী সমস্যা তার? কেউ বলছেন, তিনি ইনজুরি থেকে পুরোপুরি সুস্থ নন। আবার কেউ বলছেন বিষয়টা মানসিক। দুনিয়ার বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যানের আত্মবিশ্বাসে চিড় ধরানো কাটার মাস্টার নাকি নিজের আত্মবিশ্বাসটা খুঁজে পাচ্ছেন না!

চিকিৎসক-ফিজিও-ট্রেনাররা বলছেন, মোস্তাফিজের এখন কোনো সমস্যা থাকার কথা নয়। বিসিবির চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী বলেছেন, “মোস্তাফিজের কোনো সমস্যা নেই। ওর ভয় পাওয়ারও কিছু নেই। ডাইভ দিতে গিয়ে সে কাঁধে কাঁধে চোট পেয়েছিল। বোলিং করে কাঁধের চোটে সে পড়বে না। এটা তাকে ভালোভাবে বোঝানো হয়েছে। ”

কিন্তু মোস্তাফিজ বলছেন তার কাঁধে এখনও ব্যথা আছে। একই কথা বলেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। প্রধান নির্বাচক জানিয়েছেন, “মোস্তাফিজ এখনো পুরোপুরি ফিট নয়। বলতে পারেন ৭৫ শতাংশ ফিট। মার্চে শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে তাকে। ”

তাই দলের কোচ চান্দিকা হাতুরুসিংহে তাই ঝুঁকি নিতে রাজি নন। সেই ‘ঝুঁকি’ এড়াতেই দলে রাখা হয়নি বলে জানালেন তিনি।

হায়দরাবাদে নয় ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হতে যাওয়া একমাত্র টেস্ট ম্যাচকে সামনে রেখে বুধবার ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে নির্বাচকরা। সেখানে জায়গা হয়নি পেস আক্রমণে দলের অন্যতম অস্ত্র মুস্তাফিজের। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এদিন দল ঘোষণার পর সংবাদ সম্মেলনে মুস্তাফিজকে দলে না রাখার ব্যাপারে ব্যাখা দিলেন কোচ।

তিনি জানিয়েছেন, ফিজিও-চিকিৎসকরা মুস্তাফিজকে শতভাগ ফিট বললেও, মানসিকভাবে মুস্তাফিজ নিজেকে ফিট ভাবছেন না। তাই ভারত যাচ্ছেন না ‘কাটার মাস্টার’।

কোচ বলেন, ‘আমাদের আসলে কিছু করার নেই। ওর বড় একটি অস্ত্রোপচার হয়েছে। ফিরতে তাই সময় লাগেই। চোটের পর পুনর্বাসন প্রক্রিয়াতে রয়েছে সে। নিউজিল্যান্ডে সে ১২৭-১২৮ কিমি গতিতে বল করেছে। আগে ১৪০ করত। পুরোপুরি ফিট হতে তাই সময় লাগবে। আমাদের পরিকল্পনা হলো শ্রীলঙ্কা সিরিজেক ওকে পুরোপুরি ফিট পাওয়া।’

হাতুরুসিংহে জানান, চিকিৎসকরা তাকে ছাড়পত্র দিলেও মাঠের পারফরম্যান্স আলাদা ব্যাপার। সেখানে সে কতটুকু চাপে রয়েছে সেটাও দেখতে হচ্ছে টিম ম্যানেজমেন্টকে।

mustafiz-haturu

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘নিউজিল্যান্ড সিরিজে সে স্বতঃস্ফূর্ত ছিল না। মেডিকেল থেকে আমরা ওকে নিয়ে সব ছাড়পত্রই পেয়েছি। তবে মাঠে চাপের মধ্যে খেলা এবং নিজের স্কিল দেখানো পুরো অন্য ব্যাপার। ক্রিকেটার নিজে কেমন অনুভব করছে, সেটাকেই বেশি গুরুত্ব দিতে হয়েছে আমাদের। কারণ মেডিক্যালি আমরা কিছু পাইনি। ওর কথা তাই শুনতে হয়েছে। বোলিং অন্য একটি স্কিলের ব্যাপার। ওকে আরও বেশি সময় দিতে হবে আমাদের।’

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে, তিনটি টি-টোয়েন্টি আর দুটি টেস্ট ম্যাচের পূর্ণাঙ্গ সিরিজে দুটি ওয়ানডে আর দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে মাঠে নেমেছেন ‘দ্য ফিজ’। ওই চার ম্যাচে মুস্তাফিজ পাঁচটি উইকেট নিয়েছেন। এর আগে ইংল্যান্ডে কাউন্টি খেলার এক পর্যায়ে তার বাম হাতের পুরনো চোট ফিরে আসে। পরবর্তীতে তার হাতে অস্ত্রোপচার হয়। দেশে ফিরে পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে মাঠে ফিরলেও, ‘মানসিক’ভাবে এখনও শতভাগ ফিট হতে পারেননি তিনি।

সেক্ষেত্রে ভারত সফরে না থাকলেও খেলা চালিয়ে যাবেন। চলতি ফেব্রুয়ারির চার তারিখে প্রাইম ব্যাংক দক্ষিণাঞ্চলের হয়ে ইসলামি ব্যাংক পূর্বাঞ্চলের বিপক্ষে চারদিনের ম্যাচে মাঠে নামবেন।