সারাদেশে ১৭ লাখ ৮৬ হাজার ৬১৩ জন শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে আজকের পরীক্ষায়

১০:৩১ অপরাহ্ন | বুধবার, ফেব্রুয়ারী ১, ২০১৭ Breaking News, ফিচার, শিক্ষাঙ্গন, স্পট লাইট

সময়ের কণ্ঠস্বর – এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আজ  বৃহস্পতিবার। এবার পরীক্ষায় ১৭ লাখ ৮৬ হাজার ৬১৩ জন শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছেন। আজ সকাল ১০টায় এসএসসিতে বাংলা প্রথমপত্রের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

এদিন মাদরাসা বোর্ডে কুরআন মাজীদ ও তাজবীদ এবং এসএসসি ভোকেশনালে বাংলা-২ বিষয়ের পরীক্ষা নির্ধারিত রয়েছে।

এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা চলাকালে কেন্দ্রসচিবেরা ছবি তোলা যায় এমন ফোন (স্মার্টফোন) ব্যবহার করতে পারবেন না। অন্য শিক্ষকেরা পরীক্ষার কেন্দ্রে ফোন নিতে পারবেন না। ফোন অফিস কক্ষে রেখে যেতে হবে।

গত  মঙ্গলবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ৮টি সাধারণ বোর্ডের এসএসসি, মাদরাসা বোর্ডর দাখিল ও কারিগরি মিলে মোট ৭ লাখ ৮৬ হাজার ৬১৩ জন শিক্ষার্থী এবার পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে।

সরস্বতী পূজার কারণে গত ১ ফেব্রুয়ারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিলো তাই এবার ২ ফেব্রুয়ারি এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হচ্ছে।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, সারাদেশে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ পরীক্ষার সংশ্লিষ্টদের সর্তক থাকার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে যাতে কোনভাবেই প্রশ্ন ফাঁস না হয়।

অভিভাবকদের উদ্দেশে নাহিদ বলেন, প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজবে কান দেবেন না। ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ সাইটগুলোতে নজরদারি থাকবে মনিটরিং কমিটির।

170963_110

সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রণালয়ের সচিব ও বিভিন্ন বোর্ড চেয়ারম্যান উপস্থিত ছিলেন।

এবার ৮টি সাধারণ বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৪ লাখ ২৫ হাজার ৯০০ জন। মাদরাসা বোর্ডে ২ লাখ ৫৬ হাজার ৬০১ জন ও কারিগরি বোর্ডে ১ লাখ ৪ হাজার ২১২ জন রয়েছে। এ ছাড়া বিদেশি ৮টি পরীক্ষা কেন্দ্রে ৪৪৬ জন্য পরীক্ষার্থী রয়েছে।

অন্যান্য বারের মতো দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী, সেবিব্রালপালস জনিত প্রতিবন্ধীসহ অন্যান্যরা ২০ মিনিট অতিরিক্ত সময় পাবে।

সময়সূচি অনুযায়ী, ২ ফেব্রুয়ারি থেকে ২ মার্চ পর্যন্ত ৮টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এসএসসির তত্ত্বীয় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সময়সূচিতে আগামী ৪ মার্চ সঙ্গীতের ব্যবহারিক পরীক্ষা এবং ৪ মার্চ থেকে ১১ মার্চের মধ্যে বেসিক ট্রেডসহ এসএসসির সব বিষয়ের ব্যবহারিক পরীক্ষা নেয়ার কথা বলা হয়েছে। সকালের পরীক্ষা ১০ থেকে ১টা এবং বিকালের পরীক্ষা ২টা থেকে ৫টা পর্যন্ত নেয়া হবে। ৬০ দিনের মধ্যে পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে বলে জানানো হয়েছে।