মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নারীদের পূর্ণ স্বাধীনতা পেতে অনেক সময় লাগবে!


নিউজ ডেস্ক,সময়ের কণ্ঠস্বর-  মার্কিন অভিনেত্রী তিনি। রয়েছে রাজনৈতিক পরিচয়ও।তিনি অ্যাশলে জাড। বয়স এখন ৪৮।নারীদের পূর্ণ স্বাধীনতা ও মেয়েদের যৌন হয়রানির বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে তিনি নিজের দেশে নিজ জীবনের ঘটে যাওয়া না বলা কথা বলতে গিয়ে এ উক্তি করেন।

সম্প্রতি ভারতে এসেছিলেন অভিনেত্রী। নয়াদিল্লিতে একটি অনুষ্ঠানে মেয়েদের যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে কথা বলেন। সেই মঞ্চেই শেয়ার করেছেন তাঁর জীবনের কথাও।

markin heroin ash jad

এ বয়সে এসে শেয়ার করলেন তাঁর জীবনের এক বেদনাময় মুহূর্তের গোপন কথা। মাত্র সাত বছর বয়সে প্রথম শ্লীলতাহানির শিকার হন তিনি। ১৪ বছরে হন ধর্ষিতা।

অ্যাশলের কথায়, ‘তখন আমার মাত্র সাত বছর বয়স। শ্লীলতাহানি করা হয় আমার। এ সবের মানেই তো বুঝতাম না। আর ১৪ বছরে ধর্ষিতাও হয়েছি আমি। পরে ইন্ডাস্ট্রির এক বিখ্যাত ব্যক্তিও আমাকে যৌন হয়রানি করেন। তিনিই এক সময় আমাকে গ্রুম করেন। যদিও গ্রুমিং শব্দটা খুব টেকনিক্যাল। হোটেলের ঘরে ডেকে যৌন হয়রানি করেছিলেন।

অভিনেত্রীর দাবি, সারা জীবনে অন্তত ৪০ শতাংশ আয় কম হয়েছে তাঁর। এর কারণ নাকি শুধুমাত্র তিনি নারী বলেই! আমেরিকা তাঁর দেশ। আর দেশকে তিনি ভালোবাসেন।

তবে স্পষ্ট ভাষায় জানিয়েছেন, মার্কিন মুলুকেও নারীদের পূর্ণ স্বাধীনতা পেতে এখনও অনেক দিন লাগবে।

◷ ৫:০১ পূর্বাহ্ন ৷ বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী ২, ২০১৭ আন্তর্জাতিক, নারী