বাঁশখালীতে আবারো সংঘর্ষ: নিহত ১, আহত অন্তত ২২ জন

১০:২৮ পূর্বাহ্ন | বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী ২, ২০১৭ Breaking News, আলোচিত বাংলাদেশ, চট্টগ্রাম, দেশের খবর

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি – চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে স্থানীয়দের দুই পক্ষে আবারো সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে একজন নিহত এবং আরো অন্তত ২২ জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত আরো দুজনকে চমেকে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহত মোহাম্মদ আলী গণ্ডামারার বাসিন্দা বলে জানা যায়। সংঘর্ষে গুরুতর আহত হওয়ার পর অন্যান্যদের সঙ্গে মোহাম্মদ আলীকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অন্য আহতরা হলেন- জামাল হোসেন (৩৫), মোঃ ইউনুছ (৪৫), আবু সৈয়দ (২৫), মোস্তাফিজুর রহমান (৪৫), কবির আহমদ (৩০)সহ ১৫-২২ জন।

প্রত্যক্ষদর্শী স্থানীয়রা জানান, বুধবার দুপুরে গণ্ডমারা ইউনিয়নের পশ্চিম বড়ঘোনায় এস আলম গ্রুপের নির্মাণধীন বিদ্যুৎকেন্দ্র এলাকার উন্মুক্ত স্থানে মতবিনিময় সভা ডাকা হয়েছিল। কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প নিয়ে নৌবাহিনী ও প্রশাসনের সঙ্গে স্থানীয় জনগণের মত বিনিময় সভার প্রাক্কালে দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

এসময় মোহাম্মদ লেয়াকত আলী গ্রুপ ও আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান নুরুল মোস্তফা সংগ্রাম গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। বিপুল সংখ্যক পুলিশ নৌবাহিনী ও প্রশাসনের উপস্থিতিতে দুই গ্রুপের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় উপস্থিত জনগণ শঙ্কিত হয়ে দিকবেদিক ছুটাছুটি শুরু করে।

bashkhaliকয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্পের স্থানীয় জনগণের ক্ষতিপূরণ ও যথাযথ পাওনা পাওয়ার আশ্বাস প্রদানের জন্য এই মত বিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। সভার শেষ মুহূর্তে নৌবাহিনীর গোয়েন্দা বিভাগের প্রধান কমোডর এম. সোহাইল স্থানীয় জনগণকে তাদের ন্যায্য পাওনা যথাযথভাবে বুঝিয়ে দেবেন বলে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন।

সূত্রমতে, বেশ কিছুদিন যাবৎ কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প এলাকায় স্থানীয় জনগণের পাওনা টাকা নিয়ে চরম উত্তেজনা বিরাজ করে আসছিল। এরই প্রেক্ষিতে স্থানীয় প্রশাসন ও নৌবাহিনীর পক্ষ থেকে স্থানীয় জনগণকে নিয়ে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয় প্রকল্প স্থানে।

সকাল থেকে বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও নৌবাহিনীর কর্মকর্তারা এবং বাঁশখালীর প্রশাসনিক কর্মকর্তারা ওই স্থানে জড়ো হয়। এ সময় লেয়াকত আলী বিপুল সংখ্যক লোক নিয়ে এসে মাঠের চার পাশে শোডাউন করলে নুরুল মোস্তফা সংগ্রাম গ্রুপের লোকজন তা বন্ধ করার জন্য দাবি জানান। এতে দুই গ্রুপ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

এরআগে গত বছর ৪ এপ্রিল এ বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ নিয়ে সংঘর্ষে বাঁশখালীর গণ্ডামারায় চারজন নিরীহ গ্রামবাসী নিহত হন।