ফরিদপুরে মাদক ব্যবসা ও ছিনতাইয়ের প্রতিবাদ করায় যুবককে পেটানোর অভিযোগ

৬:৩৩ অপরাহ্ন | বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী ২, ২০১৭ ঢাকা, দেশের খবর

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি: ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার আলগী ইউনিয়নে প্রকাশ্য দিবালোকে পিটিয়ে গুরুত্বর আহত করা হয়েছে মনির মোল্যা নামে এক যুবককে।

fomak

মাদক ব্যবসায়ী ও ছিনতাইকারীদের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের লেলিয়ে দেয়া সন্ত্রাসী বাহিনী এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন আহতের পিতা যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ ওরফে টুকু মোল্যা। গুরুত্বর আহত মনির মোল্যা (৩২) কে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, গত বুধবার দুপুরে ভাঙ্গা উপজেলা সদর হতে আলগী ইউনিয়নের শাহ মুল্লুকদি গ্রামের বাড়ি ফিরছিলেন মনির। পথিমধ্যে কাচিখালী নামকস্থানে তার গতিরোধ করে কাফুরিয়া সদরদি গ্রামের জনৈক সাব্বির। এরপর মুখোশ পরা তিন ব্যক্তি এসে পেছন থেকে হকিষ্টিক দিয়ে এলাপাথারী পিটিয়ে তাকে গুরুতর আহত করে। এরপর তাকে প্রথমে ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য ফমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। মনিরের সারা শরীরে মারাত্মক জখমের সৃষ্টি হয়েছে। মাথার পেছনে ডান পাশে গুরুত্বর জখম রয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল আজিজ সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, মাদক ব্যবসা ও ছিনতাইকারীদের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ায় স্থানীয় আলগী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাওসার ভুইয়ার লেলিয়ে দেয়া সন্ত্রাসীরা এ হামলা চালিয়েছে। বিষয়টি ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে মৌখিকভাবে অবহিত করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান কাওসার ভূঁইয়ার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি অভিযোগ অস্বীকার করে এ ব্যাপারে কিছু জানেন না বলে জানান।

এ ব্যাপারে ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আব্দুল্লাহর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক মামলা নেয়া হবে।