খাগড়াছড়িতে ট্রাক চাপায় একই পরিবারের মা-ছেলের মর্মান্তিক মৃত্যুসহ নিহত ৮, আহত ৯

৪:৫৭ অপরাহ্ন | শুক্রবার, ফেব্রুয়ারী ৩, ২০১৭ অকালমৃত্যু প্রতিদিন, আলোচিত, ফিচার

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি, সময়ের কণ্ঠস্বর.    খাগড়াছড়ির আলুটিলায় ট্রাক চাপায় পৃষ্ট হয়ে একই পরিবারের মা ও ছেলেসহ ৮ জন নিহত হয়েছে। আজ দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ৯ জন গুরুতর আহত হয়েছেন।

জানা গেছে, আজ আলুটিলাস্থ ধাতুচৈত্র বৌদ্ধ বিহারে প্রধান ভান্তের দাহ ক্রিয়া অনুষ্ঠান ছিল। এখানে বহু পূর্ণাথীর মিলনমেলা ঘটে। এ নিয়ে রাস্তার দুপাশে মেলা বসে। এ সময় ঢাকা থেকে পাথর বোঝাই একটি ট্রাক (চট্রমেট্রো ১১-৩৮০০) সেখানকার দোকানে পিঠা খাওয়ার জন্য জড়ো হওয়া লোকদের উপর তুলে দেয়। এতেই এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই ৭ জন নিহত হয়। হাসপাতালে অপর ১ জন নিহত হয়। এছাড়া ৯ জন আহত হয়।

নিহতরা হলেন মহালছড়ি উপজেলার চুংড়াছড়ির মংপ্রস্ন মারমার স্ত্রী নাইম্রা মারমা (৪০) ও তার ছেলে চিংলা মারমা (১৩), একই এলাকার চাইলাপ্রস্ন মারমার ছেলে উচিংনু মারমা (১৫), মংমং মারমা শিশু কন্যা মাথিং মারমা (৫), চাইহ্লা মারমার শিশু কন্যা টুনটুনি মারমা (১০), মংক্ররীর মারমার ছেলে অংক্যচিং মারমা (১২) ও রামগড় উপজেলার পাতাছড়া ইউনিয়নের নাকপা এলাকার আক্যসুই মারমার ছেলে সাথোইপ্রু মারমা (১৫)। নিহত আরেক জনের নাম এখনও পাওয়া যায়নি।

khagrachoriআহতেদের মধ্যে ববি মারমা সহ অন্য একজন আশঙ্কাজনক বলে জানান সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক নয়ন ময় ত্রিপুরা। তিনি আরও জানান, তাদের অবস্থা এত বেশি খারাপ যে তাদেরকে বাইরে কোথাও পাঠানো যাচ্ছেনা। পুলিশ ঘাতক ট্রাকটি আটক করেছে। তবে চালক পলাতক রয়েছে।

এদিকে নিহত ৮ জনের মধ্যে ৬ জনই একই গ্রামের। এ ঘটনায় পুরো গ্রাম জুড়ে চলছে শোকের মাতম। ময়নাতদন্ত শেষে লাশগুলো তাদের গ্রামে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।