বড়বোনকে বিয়ে করতে ব্যর্থ হবার পর নিজের দেয়া ‘ঘোষণা’ পুরনে এবার ছোটবোনকে অপহরণ করেছে বখাটে যুবক

২:০২ অপরাহ্ন | শনিবার, ফেব্রুয়ারী ৪, ২০১৭ অপরাধ, আলোচিত, দেশের খবর, বরিশাল, স্পট লাইট


ঘটনাস্থল- পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় উপজেলার ছোট শৌলাগ্রাম

 মঠবাড়িয়া, পিরোজপুর প্রতিনিধি, সময়ের কণ্ঠস্বর-

বড়বোনকে বিয়ে করার নানা চেষ্টায় ব্যর্থ হবার পর  কলেজপড়ুয়া ছোটবোনকে অপহরণ করেছে এক যুবক ও তার সহযোগীরা। কদিন আগেই ঐ যুবকের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে পারিবারিকভাবে বড়বোনের অন্যত্র  বিয়ে দেবার পর অপহরনের শিকার হলেন ছোটবোন।

যুবকের ‘কু-দৃস্টি’  পড়েছিলো পরিবারের বড় মেয়ের প্রতি। তবে বখাটেপনার অভিযোগে স্থানীয়ভাবে সু-পরিচিত ঐ  যুবক শতচেস্টাতেও জয় করতে পারেনি তার প্রত্যাশিত প্রেমিকা অথবা তার পরিবারের কারো  মন। প্রেম অথবা বিয়ে এমন নানা দাবীতে  যুবকের  নানা অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয় ছিলো মেয়েটি সহ তার পরিবার। অবশেষে গত কয়েকমাস আগে বখাটে প্রেমিক ঐ যুবকের চোখ অনেকটা ফাঁকি দিয়েই মেয়েটিকে ঢাকায় এক আত্মীয়ের বাড়িতে রেখে বিয়ে দেয়া হয়।

সেসময় বিয়ের খবর জানার পরই আরোও বেশি ক্ষীপ্ত হয়ে প্রকাশ্যেই ঘোষণা দিয়ে বলেছিলো, বড়বোনকে বিয়ে করতে না পারলেও প্রতিশোধ নিতে প্রয়োজনে জোর করেই তুলে নিয়ে বিয়ে করবে তার ছোটবোনকে।

অবশেষে সেই ঘোষণাই কার্যকর করলো বখাটে ঐ যুবক! এই ঘটনায় পুরো এলাকাজুড়েই উত্তেজনা বিরাজ করছে।

গত বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে কলেজে যাওয়ার পথে গ্রামের একটি সড়ক থেকে মেয়েটিকে অপহরণ করা হয় । অপহৃত মেয়েটি পাশ্ববর্তী ভাণ্ডারিয়া উপজেলার একটি স্কুল অ্যান্ড কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী।

অপহরনের শিকার কলেজ ছাত্রীর বাবা সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানায় , ‘তার বড়মেয়েকে বিয়ে করতে না পেরে স্থানীয় ফিরোজ হাওলাদারের ছেলে জসিম হাওলাদার ও তার সাত/আটজন সহযোগী মিলে তার ছোট মেয়েকে অপহরণ করে নিয়ে যায়।’

এ ঘটনায় ঐ কলেজ ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে জসিম হাওলাদারসহ ৯ যুবকের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার মঠবাড়িয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

শুক্রবার রাত পর্যন্ত পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার অথবা অভিযুক্ত যুবকদের কাউকে আটক করতে পারেনি।

kidnap-news-by-somoyerkonth

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার অপহৃত ওই কলেজ ছাত্রীর বড়বোনকে জোরপূর্বক বিয়ের জন্য পার্শ্ববর্তী বড়শৌলা গ্রামের জসিম হাওলাদার নানাভাবে হয়রানি করে আসছিল। এতে অতিষ্ঠ হয়ে গত ঈদের পর তাকে ঢাকায় বিয়ে দেয় তার পরিবার। সেসময় ক্ষিপ্ত হয়ে জসিম হাওলাদার ঘোষণা দিয়ে রেখেছিলেন ‘প্রতিশোধ হিসেবে’  প্রয়োজনে ছোটবোনকে তুলে নিয়ে গিয়ে বিয়ে করবেন। এই ঘটনার জের ধরেই গত বৃহস্পতিবার কলেজে যাওয়ার পথে পথ থেকে অপহরনের শিকার হয় ছোটবোন।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে, মঠবাড়িয়া থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, এ ঘটনায় কলেজছাত্রীর বাবা থানায় মামলা দায়ের করেছেন। অপহৃতাকে উদ্ধার ও অভিযুক্ত যুবকদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান চলছে।