সংবাদ শিরোনাম

বয়স ১০০ ছুঁইছুঁই, দুলি খাতুনের ভাগ্যে কবে জুটবে বয়স্ক ভাতা?ওয়ান শুটারগান ও গুলিসহ আনোয়ারার গেট্টু নাছির গ্রেপ্তারপ্রয়োজনে আরও ভ্যাকসিন কেনা হবে: প্রধানমন্ত্রীটাঙ্গাইলে যৌন হয়রানি ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে প্রধান শিক্ষক বরখাস্তজামালপুরে বাগানে মিলল তরুণীর ঝুলন্ত লাশ, মৃত্যু নিয়ে রহস্যসুবর্ণচরে ধর্ষণের শিকার হয়ে স্কুলছাত্রীর আত্নহত্যাভোটের অধিকার আদায়ে প্রয়োজনে আন্দোলনে নামবে জাতীয় পার্টি: বাবলুরাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যেতে তাবিথকে ‘বাধা’গাজীপুরে সকল ট্রেনের যাত্রাবিরতির দাবিতে অবস্থান ধর্মঘটচমেকে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, ব্যাপক ভাঙচুর

  • আজ ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

হবিগঞ্জে তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীকে ছুরিঘাকাত, আশংকা জনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি

৩:৩৭ অপরাহ্ন | শনিবার, ফেব্রুয়ারী ৪, ২০১৭ Breaking News, দেশের খবর, সিলেট

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: হবিগঞ্জ সদর উপজেলার দিঘলবাগ গ্রামে রাজিয়া খাতুন (২৫) নামে তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীকে চুরিকাঘাত করেছে তার স্বামী মোঃ তৈয়ব আলী। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনার পর থেকে তৈয়ব আলী পলাতক রয়েছে।

গতকাল শুক্রবার (৩ ফেব্রুয়ারী) দিনগত রাত ১১ টায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত সূত্র জানায়, প্রায় ৬ বছর পূর্বে শহরের ছোট বহুলা গ্রামের মৃত কদর আলীর পুত্র মোঃ তৈয়ব আলীর সাথে একই উপজেলার দিঘলবাগ গ্রামের রাজিয়া খাতুনকে বিয়ে দেয় হয়। বিয়ের পর তাদের দাম্পত্য জীবনে এক কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। পরে তৈয়ব আলী মাদকাসক্ত হয়ে পড়লে রাজিয়া এক বছর পূর্বে তার পিত্রালয় দিঘলবাগ গ্রামে চলে যায়। এক পর্যায়ে রাজিয়া তাকে আইনের মাধ্যমে ডিভোর্স দেয়। এতে তৈয়ব আলী তার প্রতি ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। সে বিভিন্ন সময়ে তাকে হুমকি দিয়ে আসছিল। এতে তাদের মধ্যে বাক-বিতন্ডা হয়। শুক্রবার রাতে রাজিয়া তার ঘরের বাহিরে বাথরুমে গেলে পূর্ব থেকে উৎপেতে থাকা তৈয়ব আলী তাকে ছুৃরিকাঘাত করে। এ সময় রাজিয়ার চিৎকার শুনে আশে পাশের লোকজন এগিয়ে আসলে তৈয়ব আলী পালিয়ে যায়।

ahoto

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করেন। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক দিপংকর রায় জানান, রাজিয়ার অবস্থা খুবই আশংকা জনক। তার চিকিৎকার অবনতি ঘটলে সিলেট প্রেরন করা হবে। এদিকে, রাজিয়াকে ছুরিকাঘাত করার পর তার স্বামী তৈয়ব আলী পলাতক রয়েছে।

শায়েস্তাগঞ্জ পৌর বিএনপি নেতা শের আলী আর নেই, জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন – নেতাকর্মীদের শোক

শায়েস্তাগঞ্জ পৌর বিএনপির প্রবীণ নেতা শের আলী হৃদরোগে আক্তান্ত হয়ে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নলিল্লাহি…….রাজিউন)।

শুক্রবার বিকাল ৫টা দিকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান তিনি। এর আগে দুপুর আড়াইটার দিকে শায়েস্তাগঞ্জ পেরৈ এলাকার পশ্চিম লেঞ্জাপাড়া নিজ বাড়ীতে হৃদরোগে আক্তান্ত হন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬০ বছর। শের আলী শায়েস্তাগঞ্জ পৌর কাউন্সিলর নোয়াব আলীর বড় ভাই।

habiganj-pouro-neta

শনিবার দুপুর ২টায় চরনুর আহমদ বায়তুল আমান জামে মসজিদ ইদগাহ প্রাঙ্গনে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। জানাজায় অংশ নেয় কেন্দ্রীয় বিএনপির সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মেয়র আলহাজ্ব জিকে গউছ, শায়েস্তাগঞ্জ পৌরবিএনপির সভাপতি ও জেলা বিএনপির প্রবীণ নেতা মোঃ করম আলী, শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মোঃ ছালেক মিয়া, আওয়ামীলীগ নেতা শেখ মুজিবুর রহমান, সাবেক মেয়র ফরিদ আহমেদ অলিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এই বিএনপির নেতা শের আলীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন মেয়র জিকে গউছ, মোঃ করম আলী, সৈয়দ অলিউর রহমান এডভোকেট নুরুল ইসলাম, সৈয়দ তানভীর আহমদ জুয়েল, হাজী কিম্মত আলী, আরজু মিয়া.যুবদল নেতা কামরুল হাসান রিপন, সবুজ মিয়া, আব্দুল হাই, ফাহিন হোসেন, মুখলেছুর রহমান, আলী হুসেন, কেন্দ্রীয় মানবাধিকার কাউন্সিলের সদস্য সাংবাদিক মঈনুল হাসান রতন,শফিক মিয়া মাষ্টার, কামরুল হাসান, ছাদ্দাম হোসেনসহ হবিগঞ্জ জেলা বিএনপি ও শায়েস্তাগঞ্জ পৌরবিএনপির অংগসংগঠনের নেতাকর্মীরা