তাড়াশে মসলা জাতীয় ফসল কালোজিরা চাষ


আশরাফুল ইসলাম রনি, তাড়াশ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলায় দ্বিতীয়বারের মত এ বছর কালোজিরা চাষ করেছে কৃষকেরা। এ বছর সিরাজগঞ্জের তাড়াশ এলাকায় নানান প্রকার সবজি ও ফসলের পাশাপাশি কালোজিরা চাষ করা হয়েছে। এবার কালোজিরার ব্যাপক চাষ হয়েছে।

kalo-jira

এ কালোজিরাটি ফসল হিসেবে বাংলাদেশে গৌণ হলেও আয়ুর্বেদি, ইউনানি, কবিরাজি ও লোকজ চিকিৎসায় কালোজিরার ব্যাপক ব্যবহার রয়েছে। মসলা ও তৈল জাতীয় ফসল কালোজিরার প্রাকৃতিক গুণাগুণ অসীম। কালোজিরা রোগ মুক্তির একটা অপরিসীম নিয়ামত হওয়ায় কালোজিরার কদর এখন বেড়েই চলেছে। আদিকাল থেকে ফসফেট, লৌহ, ফসফরাস ও ক্যারোটিন সমৃদ্ধ কালোজিরা বিভিন্ন রোগের মহৌষধ হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, তাড়াশ উপজেলায় কালোজিরা চাষটা নতুন। এর পুর্বে গত বছর শুধু চাষ হয়েছে। তার আগে কখনো তাড়াশ উপজেলায় কোন কালোজিরা চাষ হয়নি। উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ সাইফুল ইসলাম এ উপজেলায় আসার পর কালোজিরা চাষে কৃষকদের উৎসাহ ও সহযোগী দিয়ে আসছেন বলে জানিয়েছে অনেক কৃষক।

এ বছর তাড়াশ উপজেলায় ৫ হেক্টর জমিতে কালোজিরা চাষ হয়েছে। তবে বাজার মুল্য ভালো হলে আগামীতে আরো চাষ হবে। তাড়াশ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় এ বছর কালোজিরা আবাদ বৃদ্ধি হয়েছে। এসব এলাকার মাঠে এখন শোভা পাচ্ছে নীলচে সাদা-কালো জাত বিশেষে হলুদ জাত কালোজিরা ফুল।

তাড়াশ উপজেলার স্থানীয় কৃষক আব্দুল মান্নান, আকবর হোসেন, জুলমাত আলী ও গয়ের শেখ জানান, অগ্রহায়ণ মাসের শেষের দিকে কালোজিরা বীজ বোপন করতে হয় এবং তিন মাসের মধ্যে ফসল ঘরে নেয়া যায়। সমতল, বেলে, দোঁ-আশ মাটিতে কালোজিরা ভাল হয়। চাষ, বীজ, সার ও পানি বাবদ বিঘা প্রতি ৫ হাজার টাকার মতো খরচ হয়। ফলন হয় ৩ থেকে সাড়ে ৩ মণ। বর্তমানে ১ মণ কালোজিরার বাজার মূল্য ১২ হাজার টাকা।

তাড়াশ উপজেলার বিন্নাবাড়ি গ্রামের কৃষক ইমান আলী জানান, বেশ কয়েক বছর ধরে কালোজিরা চাষ করে আসছি। এ বছরও অনেকেই ভালো ফলনের আশায় কালোজিরা চাষ করেছি। ফসলও ভালো হয়েছে, নিরাপদে ঘরে তুলতে পারলে দাম ভালো পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

তাড়াশ উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ সাইফুল ইসলাম সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, তাড়াশ উপজেলায় ৫ হেক্টর জমিতে কালোজিরার চাষ করা হয়েছে। ফসলও বেশ ভালো হয়েছে। কোনো রোগ-বালাই না হলে কৃষক নিশ্চিত লাভবান হবে। কালজিরা চাষীদের অল্প খরচে অধিক লাভবান হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাছাড়া কৃষকদের কালোজিরা চাষে সকল প্রকারে সহযোগীতা করা হচ্ছে।

◷ ৫:০৯ অপরাহ্ন ৷ শনিবার, ফেব্রুয়ারী ৪, ২০১৭ দেশের খবর, রাজশাহী