দেশটাকে পরিষ্কার করি (দেপক) দিবস-২০১৭ পালন


বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি: আজ ৪ঠা ফেব্রুয়ারি ২০১৭ সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত একযোগে সারা বাংলাদেশে “দেশটাকে পরিষ্কার করি (দেপক) দিবস-২০১৭ পালিত হয়েছে।

poriskar-dibos

“পরিবর্তন চাই” এর উদ্যোগে ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ইং (ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম শনিবার) দেশে তৃতীয় বারের মত পালিত হয়েছে। “দেশটাকে পরিষ্কার করি দিবস”। সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত  দেশের ৬৪ টি জেলায় শহরের গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় আয়োজন করা হয় পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার এই  অভিযান। এই সময়ে সবাই যার যার বাসা বা কর্মস্থল থেকে বের হয়ে আসে পাশের ছড়িয়ে ছিটিয়ে  থাকা মানব সৃষ্ট ময়লা আবর্জনা সংগ্রহ করে নিকটস্থ ডাস্টবিনে ফেলা এবং সবাইকে সচেতন করা  হয়। দেশের সর্বস্থরের মানুষ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সংগঠন এবং সরকারি/বেসরকারি সকল সংস্থাকে এই  অভিযানে পরিবর্তন চাই এর সাথে শ্যামিল হবার আহবান জানানো হয়।

তারই ধারাবাহিকতায় আজ শনিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি  বিশ্ববিদ্যালয়, গোপালগঞ্জ এর পরিসংখান বিভাগের উদ্যোগে গোপালগঞ্জ শহরে ২য় বারের মত পরিষ্কার  কর্মসূচি পালিত হয়। সকাল ১১ টায় “পরিবর্তন চাই, গোপালগঞ্জ এর জেলা সুনয়ক আব্দুল আলিম  সবুজের নেতৃত্বে নবীনবাগ হ্যালপাড থেকে ৫ টা দলে প্রায় ১২০ জন সদস্য নিয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ  স্থান পরিষ্কার করেন এবং তারা আশে পাশের দোকান/ব্যাবসায়ীদের যত্র তত্র ময়লা আবর্জনা না  ফেলে নির্দিষ্ট স্থানে ময়লা ফেলার আহবান জানান।

অভিযানে বশেমুরবিপ্রবির শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি  ছিল চোখে পড়ার মত এবং তারা খুব আন্তরিকতার সাথে পরিষ্কার পরিচ্ছনতায় অংশ নেন। দুপুর ১ টায় গোপালগঞ্জ লেক পাড়ে দেপক এর অভিযান শেষ হয়। পরিবর্তন চাই এর গোপালগঞ্জ জেলা সুনয়ক আব্দুল আলিম সবুজ সবাইকে উপস্থিত হবার জন্য  ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন “আমরা পরিবর্ত করতে চেয়েছি, করেছি এবং করব”।

কর্মসূচি শেষে সদস্যরা সবাই নির্দিষ্ট স্থানে ময়লা ফেলার শপথ গ্রহন করেন এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের  কাজে অংশ নেবেন বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করেন। পরে সবার হাতে পরিবর্তন চাই এর পক্ষ থেকে  একটা সার্টিফিকেট তুলে দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, দেশটাকে পরিষ্কার করি দিবস (দেপক) বাংলাদেশে ২০১৩ইং সাল থেকে শুরু হলেও  গোপালগঞ্জে ২০১৬ইং সালে প্রথম এর কর্মসূচি পালিত হয়।

◷ ৫:৫৯ অপরাহ্ন ৷ শনিবার, ফেব্রুয়ারী ৪, ২০১৭ শিক্ষাঙ্গন