সংবাদ শিরোনাম

মুশতাকের মৃত্যুকে ঘিরে আন্দোলনে বাতাস দিচ্ছে জঙ্গিগোষ্ঠী: তথ্যমন্ত্রীকক্সবাজারে মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে পিতার যাবজ্জীবনস্বাধীনতা ইশতেহার পাঠের সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে টাঙ্গাইলে আলোচনা সভাবকেয়া বেতনের দাবিতে চট্টগ্রামে পোশাক শ্রমিকদের সড়ক অবরোধমাদক মামলায় দেশের ইতিহাসে প্রথম ফাঁসির আদেশকৃষকের অনীহা, আমন মৌসুমে ধান-চাল সংগ্রহে ব্যর্থ খাদ্য অধিদফতরনিখোঁজের ৮ দিন পর বৃদ্ধের মরদেহ উদ্ধার; পরিবারের দাবি হত্যাখালেদা জিয়ার আবেদন আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীতিস্তা টোল প্লাজায় আট লাখ ৭০ হাজার ভারতীয় রুপিসহ আটক ১শতাধিক যুবকের রঙিন চুল কাটালো পুলিশ

  • আজ ১৮ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ভারতীয় বিএসএফের কাটা ঘাঁয়ে এবার পাকিস্তানিদের লবণের ছিটা!

৩:২৬ অপরাহ্ন | রবিবার, ফেব্রুয়ারী ৫, ২০১৭ Breaking News, আন্তর্জাতিক, স্পট লাইট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক – খারাপ মানের পচা বাসি খাবার, অফিসারদের দুর্নীতি আর দুর্ব্যবহারের বিরুদ্ধে সোশাল মাধ্যমে ভিডিও আপলোড করে তোলপাড় ফেলে দিয়েছিলেন বিএসএফ জওয়ান তেজ বাহাদুর।

ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) ২৯ ব্যাটালিয়নের ওই কর্মীর ওই কাণ্ডে বেশ বিব্রত হয়ে পড়ে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ।

এরপর সৈনিকদের ওপর বিধিনিষেধ কিছুটা শিথিল করা হয়।

কিন্তু এরপর আবার বিএসএফের কাটা ঘাঁয়ের ওপর লবণের ছিটা দেন তাদেরই আরেক কর্মী। এবার খোঁচাটা মারেন ১৫০ ব্যাটালিয়নের ক্লার্ক নবরতন পাল চৌধুরী।

গান্ধীনগরের ওই ব্যাটালিয়ন ক্লার্ক নবরতন ৩ মিনিটের এক ভিডিওতে অভিযোগ করেন- বিএসএফ জওয়ানদের জন্য বরাদ্দ মদ বাইরে বিক্রি করে দিচ্ছেন কর্তারা। তাও আবার গুজরাটে- যেই রাজ্যে মদ্যপান-বিক্রি নিষিদ্ধ।

tej-bahadur-yadav

বিষয়টি এত তোলপাড় তোলে যে মুখ খুলতে হয় সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াতকেও। তিনি প্রকাশ্যে এভাবে অভিযোগ জানাতে বারণ করেন নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মীদের। তাদের অভিযোগের জন্য খোলা হয় হোয়াটসআপ অ্যাকাউন্ট।

পরিস্থিতি যখন এমন তখনি চিরশত্রু পাকিস্তানিরা ভারতীয়দের ঘরের অশান্তিতে মজা নেয়ার সুযোগ পেয়ে যায়। তারা তাদের কাটা ঘায়ে ফের আঘাত দিতে শুরু করেছে, সঙ্গে লবণ তো আছেই।

ভারতীয় মিডিয়ায় প্রকাশিত খবরে জানা গেছে- পাকিস্তানিরা বিএসএফ সদস্যদের টিটকারি দিয়ে বলছে, তোদের খাবার না থাকলে আমাদের এখানে এসে খেয়ে যা।

গুজরাট ফ্রন্টিয়ারের এক বিএসএফ কর্মকর্তা বলেন, সীমান্তের ওপাড় থেকে আমাদের জওয়ানদের উদ্দেশ্যে কটাক্ষ উড়ে আসছে।

প্রসঙ্গত, বার্মা সেক্টরে মুখোমুখি পোস্টে আছে ভারত-পাকিস্তানের সীমান্তরক্ষীরা। এখানে বিএসএফ জওয়ানদের উঠতে বসতে হরদম কটাক্ষ করে চলেছে পাকিস্তানি সীমান্তরক্ষী রেঞ্জার্স জওয়ানরা।

নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক বিএসএফ কর্মকর্তা বলেন, আমাদের জওয়ানদের ডেকে বলা হয়- খাবার খেতে চাইলে পাকিস্তানি পোস্টে গিয়ে খেয়ে আয়। অনেক খাবার আছে!

বিষয়টি বিএসএফের মনোবলে প্রচণ্ড ধাক্কা দিচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, ভারতীয় জওয়ানদের মনোবল কমাতে আইএসআই সবসময় চেষ্টা চালায়। পাকিস্তানি গুপ্তচর সংস্থা আইএসআইয়ের নির্দেশেই দেশটির সৈনিকরা বিএসএফকে নিয়ে এমন টিটকারি খেলায় মেতেছে বলে মনে করছেন তিনি।

এ ব্যাপারে পাকিস্তানিদের বক্তব্য জানা যায়নি।