বান্দরবানের অপহৃত গ্রামপ্রধান গুরুতর আহতাবস্থায় ৩০ ঘন্টা পর উদ্ধার

৫:৪৩ অপরাহ্ন | রবিবার, ফেব্রুয়ারী ৫, ২০১৭ Breaking News, আলোচিত, চট্টগ্রাম, দেশের খবর

মোহাম্মদ আব্দুর রহিম, বান্দরবান প্রতিনিধি:

বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলার বাগমারা ভেতর পাড়া থেকে গত শুক্রবার রাতে অপহৃত গ্রামপ্রধান মংশৈথুই মারমা ৩০ ঘন্টা পর উদ্ধার হয়েছেন।

সেনাবাহিনী ও পুলিশের যৌথ অভিযানে তিনি উদ্ধার হন রোববার ভোর ৬টায় একই উপজেলার দুর্গম বেতছড়া ঝিরি এলাকা থেকে। তবে অপহরণকারী সন্ত্রাসীদের মারপিটে তিনি গুরুতর আহত হন। পুলিশ ও সেনাবাহিনীর সুত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে রোববার সকাল সাড়ে ৮টায়।

রোয়াংছড়ি থানার পুলিশ সুত্র জানায়, গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টায় নোয়াপতং ইউনিয়নের বাগমারা ভেতর পাড়া থেকে গ্রামপ্রধান ও আওয়ামী লীগ নেতা মংশৈথুই মারমাকে জনসংহতি সিমিতির সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা অপহরণ করে জংগলে নিয়ে যায়। তাকে বেধড়ক মারপিট করা হয়। অপহরণের সংবাদ পাওয়া মাত্রই সেনাবাহিনী ও পুলিশ যৌথ অভিযানে নামেন। ৫/৬টি উদ্ধার দল মাঠে কাজ করে। ফলে সন্ত্রাসীরা বাধ্য হয়ে মংশৈথুইকে ফেলে পালিয়ে যায়। রোববার ভোর ৬টায় বেতছড়ার ঝিরি এলাকা থেকে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় সন্দেভাজন ২জনকে পুলিশ গ্রেফতার করে গত শনিবার ভোর রাতে।

bandorban-kidnap

রোয়াংছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান চলামং মারমা সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, অপহৃত গ্রামপ্রধান উদ্ধার হওয়ায় আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি ঘোষিত সকাল-সন্ধ্যার অবরোধ কর্মসূচি প্রত্যাহার করা হয়েছে।