• আজ ২১শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

একসঙ্গে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছেন মা-ছেলে

৮:৩৩ অপরাহ্ন | রবিবার, ফেব্রুয়ারী ৫, ২০১৭ আলোচিত বাংলাদেশ

নাটোর প্রতিনিধি- কথায় আছে বাঙালি মেয়ে কুড়িতেই বুড়ি। আর বয়সটা যদি হয় কুড়ি যোগ কুড়ি মানে চল্লিশ, তবে কি ‘বুড়ি থুত্থুড়ি’? মোটেও না। এ যুগে বয়সের কাছে হার মানা কখনোই নয়। মনটা সজীব থাকলে আর একটু সচেতন হলে বয়সকে হার মানাতে নিজের ইচ্ছাই যথেষ্ট। আপনি নন, বয়সই হার মানবে আপনার কাছে।

193369_185এমনটাই প্রমাণ করলেন নাটোরের বাগাতিপাড়ার মলি রাণী। ৩৫ বছর বয়সে চলতি এসএসসি পরীক্ষায় নিজের ছেলের সাথে পরীক্ষা দিচ্ছেন তিনি। মলি রাণী উপজেলার গালিমপুর গ্রামের দেবব্রত কুমার মিন্টুর স্ত্রী। রোববার বাগাতিপাড়া ডিগ্রী কলেজ কেন্দ্রে মা মলি আর ছেলে মৃন্ময় কুমার কুণ্ডু কারিগরি বোর্ডে ইংরেজি পরীক্ষা দেন।

মলি রাণী জানান, নবম শ্রেণীতে পড়ার সময় তার বাবা নওগাঁ জেলার মান্দা উপজেলার প্রসাদপুর গ্রামের অসিত কুণ্ডুর সাথে তাকে বিয়ে দেন। পরে আর পড়ালেখা করার সুযোগ হয়নি তার। সংসারের চাপে গৃহিণীই রয়ে যান। এরই মধ্যে তার ঘরে দুটি সন্তানের জন্ম হয়। বড় ছেলে মৃন্ময় কুমার কুণ্ডু বাগাতিপাড়া মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে কারিগরি শাখায় বিল্ডিং মেইনটেনেন্স ট্রেডে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। ছোট ছেলে পাপন কুণ্ডু তৃতীয় শ্রেণীতে পড়ে।

ছেলেদের পড়ালেখা করাতে গিয়ে তিনি অনুভব করেন তার নিজের পড়ালেখা জানা দরকার। সেই ভাবনা থেকেই বাগাতিপাড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে কারিগরি শাখায় ড্রেস মেকিং অ্যান্ড টেইলারিং ট্রেডে ভর্তি হন। চলতি বছর একই বইয়ে মা ও ছেলে লেখাপড়া করে ওই বিদ্যালয় থেকে তিনি এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছেন।

তার স্বামী মিষ্টি দোকানদার হয়েও স্ত্রী-সন্তানের পড়ালেখায় বেশ সহযোগিতা করেন। সারাদিন সংসারের কাজ সেরে রাত জেগে পড়ালেখা করে পরীক্ষায় অংশ নিয়েও ভালো প্রস্তুতি নিয়েই পরীক্ষা দিচ্ছেন বলেও জানিয়েছেন মলি রাণী।