ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যে সন্দেহ দানা বাঁধছে: রিজভী

১:৩৭ অপরাহ্ন | সোমবার, ফেব্রুয়ারী ৬, ২০১৭ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর- বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ওবায়দুল কাদের বলেছেন-ইসি গঠনে অনুসন্ধান কমিটি রাষ্ট্রপতির কাছে যে তালিকা জমা দিবেন তা জাতির সামনে প্রকাশের প্রয়োজন নেই। আসলে সরকার নিরপেক্ষ ইসি গঠনের পক্ষে কি না তা ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্যে যথেষ্ট সন্দেহ দানা বাঁধছে।

সোমবার সকালে নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

দলীয় মতাদর্শের বাইরে গিয়ে নিরপেক্ষ লোকদের দিয়ে সরকার তালিকা তৈরি করবেন কিনা তা নিয়ে জনগণ যথেষ্ট শঙ্কিত বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির এই নেতা। সেইসাথে নির্বাচন কমিশনের জন্য সৎ, দক্ষ, যোগ্য ও নিরপেক্ষ লোকদের নামের তালিকা করে জাতির সামনে প্রকাশ করার আহবান জানিয়েছে দলটি।

180068_179রিজভী বলেন, ইসি গঠনে অনুসন্ধান কমিটি নামের তালিকা প্রস্তুত করে মহামান্য রাষ্ট্রপতির কাছে জমা দিবে। ইতোমধ্যে তারা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কাছ থেকে নাম নিয়েছেন। দেশের বিশিষ্ট নাগরিকদের সঙ্গে তারা দুই দফা বৈঠকও করেছেন। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলসহ সকলের দাবি-নিরপেক্ষ, সৎ, যোগ্য ও দক্ষ লোকদের নামের তালিকা করে অনুসন্ধান কমিটি তা রাষ্ট্রপতির কাছে পেশ করবেন এবং নামের তালিকাটি জাতির সামনে প্রকাশ করবেন।

বিশিষ্ট নাগরিকরাও বৈঠকে একই দাবি করেছেন বলে জানা গেছে। যদিও যেভাবে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোভাবাপন্ন লোকদের দিয়ে অনুসন্ধান কমিটি গঠন করা হয়েছে তাতে তারা দলীয় মতাদর্শের বাইরে গিয়ে নিরপেক্ষ লোকদের দিয়ে তালিকা তৈরি করবেন কিনা তা নিয়ে জনগণ যথেষ্ট শংকিত।

বিএনপির এই নেতা আরও বলেন, বিএনপিসহ দেশবাসীর প্রত্যাশা-অনুসন্ধান কমিটি দলীয় সঙ্কীর্ণতার উর্ধ্বে ওঠে শাণিত বিবেক দিয়ে কাজ করবেন, যাতে জাতীয় স্বার্থই প্রাধান্য পায়। গণতন্ত্রের অন্যতম উপাদান নির্বাচন, সেই নির্বাচন যাতে কলুষমুক্ত করা যায় সেই লক্ষ্যেই শক্তিশালী নির্বাচন কমিশনের প্রয়োজন। এ জাতির প্রতি অনুসন্ধান কমিটিরও যথেষ্ট দায়িত্ব ও জবাবদিহিতা রয়েছে। জাতি প্রত্যাশা করে দলনিরপেক্ষ, সাহসী, দক্ষ ও যোগ্যতাসম্পন্ন ব্যক্তিদের নাম প্রস্তাব করবে অনুসন্ধান কমিটি। যাতে প্রভাবমুক্ত, যেকোনো চাপকে অগ্রাহ্য করতে পারে এধরনের শক্তিশালী, ঋজু, মেরুদন্ডসম্পন্ন নির্বাচন কমিশন গঠন সহায়ক হয়।

আর এটি বাস্তবায়িত হলে বর্তমান সঙ্কটময় রাজনীতি কিছুটা হলেও আশার আলো দেখতে পাবে। জনগণের ইচ্ছাকে পদদলিত করে তারা এমন কোনো কাজ করবেন না যাতে দেশবাসী তাদের প্রতি আস্থাহীন হন। একই সঙ্গে তাদের প্রস্তাবিত নামগুলো প্রকাশ করতে হবে। তাহলে বোঝা যাবে অনুসন্ধান কমিটি ক্ষমতাসীনদের নির্দেশে কাজ করছে, নাকি নিরপেক্ষভাবে কাজ করছে।