না ফেরার দেশে চলে গেছেন সুরঞ্জিত, যা বললেন বিএনপি নেতা মওদুদ

◷ ৮:২৭ অপরাহ্ন ৷ সোমবার, ফেব্রুয়ারী ৬, ২০১৭ Breaking News, জাতীয়, স্পট লাইট

সময়ের কণ্ঠস্বর – বর্ষীয়ান রাজনীতিবীদ, প্রবীণ পার্লামেন্টারিয়ান ও আওযামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত চলে গেছেন অজানার দেশে। কিন্তু কর্ম আর ব্যবহারে রেখে গেছেন অনেক স্মৃতি আর অবদান। মৃত্যুর পর আজ তাকে বিভিন্ন জন বিভিন্নভাবে তাকে মূল্যায়ন করছেন। ব্যক্তিজীবনে সমাজের অন্যান্য মানুষের কাছে যেমন ছিলেন অভিভাবক তুল্য, তেমনি রাজনৈতিক জীবনেও তিনি ছিলেন একজন দক্ষ রাজনীতিবিদ।

দেশের রাজনীতিতে তার মতো স্টাইলিশ পার্লামেন্টরিয়ান সংসদীয় গণতন্ত্রের ইতিহাসে এক কিংবদন্তি।

সদ্যপ্রয়াত এই নেতার সুদীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে অনেকের সঙ্গেই বন্ধুত্ব গড়ে উঠে। এর মধ্যে রাজনীতির বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের সঙ্গে তার বন্ধুত্ব ছিল অনেক দিনের। রাজনীতিতে তিনিও একজন প্রাজ্ঞ পার্লামেন্টরিয়ান।

ভিন্ন রাজনৈতিক আদর্শের সঙ্গে যুক্ত থাকলেও তাদের মধ্যকার সম্পর্কটা ছিল বেশ মধুর। সুরঞ্জিত সম্পর্কে স্মৃতি চারণ করতে গিয়ে মওদুদ আহমদ বলেন, ‘রাজনীতিতে সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের অবদান ইতিহাসে লেখা থাকবে এবং একজন সুদক্ষ প্রতিভাবান পার্লামেন্টরিয়ান হিসেবে তার নাম পার্লামেন্টের ইতিহাসে থেকে যাবে।’

‘আমার সঙ্গে তার ৫০ বছরের পরিচয়। আমরা ভিন্ন রাজনীতি করেছি। কিন্তু বন্ধু হিসেবে সে সম্পর্কটা আমাদের মধ্যে সব সময় থেকেছে। এইতো কয়েকদিন আগেও তার সঙ্গে কথা হয়। সেসময় তিনি বলেছিলেন, মওদুদ ভাই, মনে হচ্ছে আমার দিন ফুরিয়ে এসেছে। আশীর্বাদ করবেন।’

moudud-suronjit

মওদুদ আহমদ বলেন, ‘র্পালামেন্টে বিতর্কের সময় আমার বক্তব্য রাখার পরে তার উত্তরে যুক্তি উত্থাপন করে পাল্টা জবাব দিতেন সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত। আমি যখন সরকারি দলে ছিলাম তখন উনি বিরোধী দলে ছিলেন আবার আমি যখন বিরোধী দলে ছিলাম তখন উনি সরকারি দলে ছিলেন- একই ঘটনা ঘটতো। আমাদের পাল্টাপাল্টি বক্তব্য সকলের কাছে গ্রহণ যোগ্য ছিল।’

দেশের সংবিধান প্রণয়নে সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের অবদান তুলে ধরে মওদুদ আহমদ আরো বলেন, ‘সংবিধান রচনার ক্ষেত্রে তার ভূমিকা ছিল গুরুত্বপূর্ণ। সংবিধান প্রণয়ন কমিটির তিনি সদস্য ছিলেন। সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের অবদান আমরা সকলেই স্মরণ করবো।’

‘আপনার সঙ্গে সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের সুদীর্ঘ ৫০ বছরের সম্পর্ক। মেইনলি রাজনীতি আর পার্লামেন্টে তার যে বক্তব্য পাল্টা বক্তব্য এবং তার মধ্যে যে হিউমার ছিল তিনি জ্ঞান এবং তথ্যভিত্তিক বক্তব্য দিতেন এটাই সুরঞ্জিত সেন গুপ্তকে স্মরণীয় করে রাখবে।’

প্রাজ্ঞ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব মওদুদ বলেন, সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত ছিলেন ক্ষণজন্মা রাজনৈতিক নেতা। তার মৃত্যুতে সত্যিই জাতির অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে। তাকে এদেশের মানুষ চিরদিন স্মরণে রাখবে গণতান্ত্রিক অধিকার আদায়ের সংগ্রামে তার অবদানের জন্য। তিনি প্রয়াত নেতার পরিবারের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করেন।

রাজধানীতে বিস্ফোরণ, উড়ে গেল সড়কের ঢাকনা

⊡ বুধবার, ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০২১

bnp ৩০ মার্চ ঢাকায় মহাসমাবেশের ঘোষণা বিএনপির

⊡ বুধবার, ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০২১

rehana করোনার টিকা নিলেন শেখ রেহানা

⊡ বুধবার, ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০২১

রোজার আগেই পাপুলের আসনে ভোট

⊡ মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ২৩, ২০২১