পীরগঞ্জে বি,এস কোয়াটারগুলো কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারণে কার্যক্রম থুবড়ে পড়েছে

৯:৪৬ অপরাহ্ন | সোমবার, ফেব্রুয়ারী ৬, ২০১৭ Breaking News, দেশের খবর, রংপুর

আব্দুল করিম সরকার পীরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি:

রংপুরের পীরগঞ্জে উপজেলার ১৫টি ইউনিয়নের কৃষি অধিদপ্তরের অধীনে নিয়োজিত ৩৫জন কৃষি উপ-সহকারীদের (বিএস) বসবাসের জন্য কোয়াটারগুলো সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অবহেলা, অব্যবস্থাপনা, দ্বায়িত্বহীনতার কারণে দীর্ঘদিন থেকে পরিত্যাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকা এবং উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের বসবাস না থাকায় হত দরিদ্র কৃষকরা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে মর্মে গুরুতর অভিযোগ উঠেছে।

কোয়াটারগুলো পড়ে থাকায় বসবাস করছে সুইপার, মালী, মুচি, রিক্সাওয়ালা ও পতিতারা এবং ছিন্নমূল মানুষেরা। সরকারি নির্দেশ অমান্য করে উপজেলায় কর্মরত কৃষি কর্মকর্তা সমীর চন্দ্র ঘোষ ও উপ-সহকারী কর্মকর্তাগণ সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নে কোয়াটার গুলোতে বসবাস না করে পীরগঞ্জ থেকে প্রায় ৪০কি: মি: দুর রংপুর জেলা সদর, কেউ কেউ নিজ বাড়ী থেকে অনিয়মিতভাবে অফিস করছেন মর্মে ভুক্তভোগী কৃষকগণ অভিযোগে করে প্রতিবেদকে জানান।

অপরদিকে কর্মকর্তারা কোয়াটারগুলোতে না থাকায় সরকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে, অন্যদিকে কোয়াটারগুলো অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে আছে বছরের পর বছর ধরে।

pirganj-bsজানা গেছে, কর্মকর্তাদের কর্মস্থলে ২৪ঘন্টা অবস্থানের সরকারি নির্দেশ থাকলেও তা উপেক্ষা করে কৃষি কর্মকর্তা/উপ-সহকারীর দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তগণ অনিয়মিতভাবে তাদের দায়িত্ব পালন করছেন। ওইসব উপ-সহকারী কর্মকর্তারা কৃষকদেরকে সেবা না দেওয়ায় উপজেলার উন্নয়ন কর্মকান্ড থুবড়ে পড়েছে।

এদিকে চলতি বোরো মৌসুমে যে পরিমান যে হেক্টর লক্ষ মাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে। তার তুলনায় এবারে এ উপজেলায় সব চেয়ে রোরো আবাদ কম হচ্ছে। এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সমীর চন্দ্র ঘোষ বলেন, পরিত্যাক্ত কোয়াটরগুলো দীর্ঘদিন ধরে ছিন্নমূল মানুষেরা বসবাস করছে। তবে মেরামত ও সংস্কারের জন্য সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন চেয়ারম্যানকে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছি।