পাবনার পদ্মা নদীতে বালু শ্রমিক রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ


image-18162


পাবনা প্রতিনিধি:

পাবনা সদর উপজেলার ভাঁড়ারা ইউনিয়নের মধুপুর গ্রামের পদ্মা নদীতে সোমবার সন্ধ্যায় শাহ আলম (৩৫) নামে এক ব্যাক্তি রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়েছেন। তিনি নদীতে বালু উত্তোলন শ্রমিকের কাজ করতেন। তাঁর বাড়ি সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর উপজেলার উথুলিয়া গ্রামে।

স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে জানা গেছে, নদীর বালু উত্তোলন নিয়ে উত্তোলনকারীদের দুইটি পক্ষের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এরই জের ধরে সন্ধ্যা সাতটার দিকে তাঁরা নদীর মধ্যেই ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে একপক্ষ অপরপক্ষকে বৈঠা দিয়ে আঘাত করে। এতে শাহ আলম নৌকা থেকে পানিতে পড়ে নিখোঁজ হন।

তবে ঘটনাস্থল থেকে রাত ৮টার দিকে পাবনা সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মনিরুল ইসলাম জানান, নদী থেকে বালু উত্তোলন কাজ শেষে সন্ধ্যায় শ্রমিকেরা নৌকাযোগে পাড়ে ফিরছিলেন। এ সময় শাহ আলমের নৌকার সঙ্গে অপর একটি নৌকার ধাক্কা লাগে। এতে তিনি পানিতে পড়ে ডুবে যান। এরপর তাঁকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা। রাত সাড়ে নয়টা পর্যন্ত নদীতে শাহ আলমের মরদেহ উদ্ধারে খোঁজ চলছিল।

এ প্রসঙ্গে ভাড়ারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সাইদ বলেন, ঘটনাটি মাঝ নদীতে। ফলে পুরো বিষয়টি পরিস্কার হওয়া যাচ্ছে না। তবে আমরা শুনেছি, শাহ আলম নৌকার নোঙ্গড়ে বেধে পানিতে পড়ে নিখোঁজ হয়েছেন। খোঁজাখুজি চলছে।

আবু সাইদের মুঠোফোনে নিখোঁজ শাহ আলমের চাচা দুলাল হোসেন বলেন, তিনি খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসেছেন। তিনিও একই কথা শুনেছেন। তবে প্রকৃত কারণ এখনও পরিস্কার নয়।

◷ ১২:১৪ পূর্বাহ্ন ৷ মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ৭, ২০১৭ দেশের খবর, রাজশাহী