সৌদি যাওয়ার আগের রাতে স্বামীকে নির্মমভাবে হত্যা করে থানায় হাজির স্ত্রী

৬:০৯ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ৭, ২০১৭ Uncategorized

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি- সৌদি আরব যাওয়ার আগের রাতে অলিউল্লাহ (৩৮) নামে এক ব্যক্তিকে হত্যা করে থানায় আত্মসমর্পণ করেছেন তার স্ত্রী মাজেদা বেগম। সোমবার রাতে এ ঘটনা ঘটে মুন্সীগঞ্জ জেলার শ্রীনগর উপজেলার পুটিমারা গ্রামে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে এক নারী থানায় এসে জানান তিনি স্বামী অলিউল্লাহকে হত্যা করে বাড়িতে লাশ রেখে এসেছেন। পরে শ্রীনগর থানার ওসির নেতৃত্বে একদল পুলিশ নিহত অলিউল্লাহর মরদেহ উদ্ধার করে। এসময় অলিউল্লাহর হাত-পা ওড়না দিয়ে বাধা ও গলায় ওড়না পেঁচানো ছিল।

murder-620x330অলিউল্লাহর পরিবার ও স্থানীয়রা জানায়, অলিউল্লাহ ১৮ বছর ধরে সৌদি আরবে কর্মরত ছিলেন। তিনি মাঝে মাঝে দেশে আসতেন। মঙ্গলবার রাতে সৌদি যাওয়ার আগে তিনি হত্যার শিকার হন। চৌদ্দ বছর আগে অলিউল্লাহর সঙ্গে হাঁসাড়া গ্রামের নুরু খলিফার মেয়ে মাজেদার সঙ্গে তার বিয়ে হয়। এ দম্পতির দুই ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

তিন মাস আগে সৌদি থেকে দেশে ফিরেন অলিউল্লাহ। এরপর স্ত্রীর নামে অর্ধকোটি টাকা দিয়ে কেনা জমি বিক্রি করে ব্যবসা করতে চান তিনি। এতে স্ত্রী রাজি হননি। পরে অলিউল্লাহ ফের সৌদি যাওয়ার জন্য চেষ্টা করেন। এতেও মাজেদা বাধা দেন। তিনি অলিউল্লাহর পাসপোর্টটি ছিঁড়ে ফেলেন। এনিয়ে হাঁসাড়া ইউনিয়ন পরিষদে সালিশও হয়।

এ পর্যায়ে নতুন পাসপোর্ট তৈরি করে সৌদি যাওয়ার উদ্যোগ নেন অলিউল্লাহ। আজ মঙ্গলবার রাতে তার ফ্লাইট ছিল। কিন্তু এর আগের রাতেই তাকে স্ত্রী মাজেদা বেগম খুন করেন।

শ্রীনগর থানার ওসি সাহিদুর রহমান জানান, অলিউল্লাহর মরদেহ উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এঘটনার সঙ্গে আরো কেউ জড়িত কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।