সংবাদ শিরোনাম

ফের করোনার সংক্রমণ বাড়ার আশঙ্কা, প্রধানমন্ত্রীর তিন নির্দেশনাবাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক আরও মজবুত হবে: : নরেন্দ্র মোদিসীমানা বাণিজ্যের ক্ষেত্রে বাধা হওয়া উচিত নয়: প্রধানমন্ত্রীগাজীপুরে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে যুবক আটককালকিনিতে পরকীয়া প্রেমিক-প্রেমিকা আপত্তিকর অবস্থায়  আটকজিয়াউর রহমানকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য আপত্তিকর: রিজভীনিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বরযাত্রীবাহী বাস ধানক্ষেতে, আহত ১৫রংপুরে ধর্ষণ মামলায় এএসআইসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিটসিরাজগঞ্জে পুত্রবধু ধর্ষণের অভিযোগে শ্বশুর গ্রেফতারওবায়দুল কাদের সাহেব আমি রাজাকারের সন্তান নই: কাদের মির্জা

  • আজ ২৪শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মুসলমানদের আপত্তিকর ভাবে দেখানোর অভিযোগে পাকিস্তানে নিষিদ্ধ হলো ‘রইস’

৩:০৮ পূর্বাহ্ন | বুধবার, ফেব্রুয়ারী ৮, ২০১৭ বিনোদন, স্পট লাইট

বিনোদন ডেস্কঃ ভারতে মুক্তির আগে বহু বাধা পেরিয়েছে শাহরুখ খানের ‘রইস’। মুক্তির পর বক্স অফিসে এখনও পর্যন্ত বেশ ভাল রেজাল্ট। এ বার পড়শি দেশে মুক্তির অপেক্ষা। ছবির নায়িকা পাক অভিনেত্রী মাহিরা খান। রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে ভারতে ছবির প্রচারে অংশ নিতে পারেননি তিনি। অনেক ঢাকঢোল পেটানো হয়েছিল। কিন্তু, শেষ পর্যন্ত ছাড়পত্র মিলল না। তাই, পাকিস্তানে আটকে গেল ‘রইস’ প্রদর্শন।

সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া বলিউডের ছবিগুলি পাক প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শনের জন্য প্রয়োজনীয় অনুমতি মেলে গত সপ্তাহে। কাজেই রবিবার থেকে ‘কাবিল’, ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’-এর মতো ছবিগুলি দেখানো শুরু হয়। কিন্তু, সোমবারের নয়া নির্দেশে বাদ পড়ে গেল শাহরুখ-মাহিরার ওই ছবি। পাক সেন্সর বোর্ডের মতে, ওই ছবির বিষয়বস্তু আপত্তিকর। তাই ছাড়পত্র দেওয়া যাবে না। নয়া এই নির্দেশে যথেষ্ট ক্ষুব্ধ ‘রইস’-এর পরিচালক রাহুল ঢোলাকিয়া। টুইট করে তিনি জানিয়েছেন, ‘পাকিস্তানে রইস নিষিদ্ধ?

Rois nishiddho pakisthan

পাক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, ছবির বিষয়বস্তু নিয়েই আপত্তি তুলেছে সেন্সর বোর্ড। ছবিতে নাকি মুসলমানদের নেতিবাচক দিক তুলে ধরা হয়েছে। ওই ধর্মীয় গোষ্ঠীকে অসম্মান করা হয়েছে। তাদের অপরাধী এবং সন্ত্রাসবাদী হিসেবে দেখানো হয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে রাহুল ঘনিষ্ট মহলে জানিয়েছেন, পাক বোর্ডের এ হেন সিদ্ধান্তে তাঁর কিছু বলার নেই। রইস বিশ্ব জুড়ে সাড়া ফেলেছে। সেখানে পাকিস্তানের এমন এই সিদ্ধান্ত তাঁকে হতাশ করেছে!

উরি হামলার পরে ভারত-পাক সম্পর্ক সম্প্রতি প্রায় তলানিতে চলে যায়। তারই ফলশ্রুতি হিসেবে পাক শিল্পীদের ভারতে কাজ করার ক্ষেত্রে সমস্যা তৈরি হয়। ‘রইস’-এর প্রচারে যেমন মাহিরা আসতে পারেননি। তবে, ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনি টিম-রইসের প্রচারে জুড়ে গিয়েছিলেন।

সেখানে মাহিরা বলেছিলেন, ‘‘খুব শীঘ্রই রইস পাকিস্তানে মুক্তি পাবে। আর বিশ্বাস করুন, এখানে সকলে ওই ছবিটার জন্য অপেক্ষা করে আছে।’’ সে দিনের সেই সাংবাদিক বৈঠকে ছিলেন শাহরুখ, নওয়াজ উদ্দিন সিদ্দিকি এবং ছবির প্রযোজক রিতেশ সিধওয়ানি।

‘রইস’ মুক্তির পর তা ও-দেশে প্রদর্শনের জন্য প্রয়োজনীয় ছাড়পত্র চেয়ে পাক সেন্সর বোর্ডের কাছে আবেদন করে ছবিটির ডিস্ট্রিবিউটর সংস্থা। ওই ডিস্ট্রিবিউটর সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, সেন্সর বোর্ডের কাছ থেকে আনুষ্ঠানিক কোনও বার্তা তাদের কাছে আসেনি।

সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া বলিউডি ছবিগুলি পাকিস্তানে দেখানোর ছাড়পত্র মেলায় টিম-রইস বেশ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছিল। সকলেই আশায় ছিলেন, রইস-ও দেখানো হবে। কিন্তু, সব আশায় জল ঢেলে দিয়েছে পাক সেন্সর বোর্ড।