গাজীপুরে চারটি ইটভাটা ভেঙ্গে দিয়েছে পরিবেশ অধিদপ্তর

৮:৩৪ অপরাহ্ন | বুধবার, ফেব্রুয়ারী ৮, ২০১৭ ঢাকা, দেশের খবর

LALMONIRHAT-NEWS-1-P-C-2


পলাশ মল্লিক, স্টাফ রিপোর্টার:

গাজীপুরে চারটি অবৈধ ইটভাটা ভেঙ্গে গুঁড়িয়ে দিয়েছে পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমান আদালত। বুধবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত পরিবেশ অধিদফতরের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোসাদ্দেক মেহেদী ইমামের নেতৃত্বে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের জয়েরটেক ও বাইমাইল এলাকায় অভিযান চালানো হয়।

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের জয়েরটেক ও বাইমাইল এলাকায় অভিযান চালায় পরিবেশ অধিদফতরের ভ্রাম্যমান আদালত। পরে অবৈধভাবে ইটভাটা পরিচালনা করার দায়ে চারটি ইটভাটার আগুন ফায়ার সার্ভিস দিয়ে নিভিয়ে ড্রেজার দিয়ে ভেঙ্গে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়।

ওইসব ইটভাটাগুলো হলো- জয়েরটেক এলাকায় ইসমাইল হোসেনের মালিকানাধিন মেসার্স ইসমাইল এন্ড কোং ও একই এলাকার নাজিম উদ্দিনের মালিকানাধীন মেসার্স এমএইচবি ব্রিকস, বাইমাইল এলাকায় জিয়াউল আলমের মালিকানাধিন মেসার্স আলম ব্রাদার্স সিন্ডিকেড এবং  ফজলু মিয়ার মালিকানাধিন ব্রিকলিংকাস ব্রিকস লিমিটেড।

ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার সময় উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুরের পরিবেশ অধিদফতরের উপ-পরিচালক সোনিয়া সুলতানা, পরিবেশ অধিদফতরের (সদর দফতর) সহকারী পরিচালক সালমান রহমান, গাজীপুরের পরিবেশ অধিদফতরের পরিদর্শক মির্জা আসাদুল কিবরিয়া, অনিতা ঘোষ, উত্তম কুমার ও হিসাবরক্ষক জিয়াউর রহমান।

এছাড়া সহযোগিতা করেছে গাজীপুর জেলা পুলিশ, জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিস ও এলজিইডিসহ এলাকাবাসী।

পরিবেশ অধিদফতরের গাজীপুর অঞ্চলের উপ-পরিচালক সোনিয়া সুলতানা জানান, ওইসব ইটভাটা গুলো কোন পরিবেশ অধিদফতরের ছাড়পত্র নেই। নিয়মনীতি না মেনে অবৈধভাবে ইট ভাটাগুলো পরিচালনা করা হচ্ছিল। গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন এলাকায় অবৈধভাবে অনেক ইটভাটা রয়েছে। উচ্চ আদালতে রিট করায় ওইসব ইটভাটার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া যাচ্ছে না। তবে অবৈধ ইটভাটা বন্ধে আমাদের অভিযান অব্যহত থাকবে।