পাবনায় এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে হতদরিদ্র ৭ দৃষ্টি প্রতিবন্ধি

৪:০২ অপরাহ্ন | বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারী ৯, ২০১৭ দেশের খবর, রাজশাহী

আব্দুল লতিফ রঞ্জু, পাবনা প্রতিনিধি-  উজ্জ্বল আগামীর প্রত্যাশায় পাবনায় হতদরিদ্র সাতজন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শ্রুতিলেখকের সহায়তায় এবারের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। পাবনা সেন্ট্রাল গার্লস স্কুল এবং আর এম একাডেমী পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে তারা পরীক্ষা দিচ্ছে।

unnamedপরীক্ষার্থীরা হলেন-চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার গাজিপাড়া গ্রামের আনোয়ারুল ইসলাম, হরিপুর গ্রামের আব্দুল মতিন তুষার, চাঁপাইনবাবগঞ্জ কাজিপাড়ার আব্দুর ছবুর, কিশোরগঞ্জ জেলার মোঙ্গলবাড়ীয়া গ্রামের নাদিম হোসেন, পাবনার ফরিদপুর উপজেলার হারুনুর রশিদ, পাবনা সদর উপজেলার মহেন্দ্রপুর গ্রামের কাওছার হোসেন ও ভাঙ্গুড়া উপজেলার শিবলী নোমান মুরাদ।

এই সাত দৃষ্টি প্রতিবন্ধী পাবনার মানব কল্যান ট্রাষ্টের আশ্রয়ে থেকে বিনা খরচে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে। তাদের একটাই ইচ্ছা ভবিষ্যতে তারা শিক্ষার আলোয় আলোকিত হয়ে দেশের সকল অন্ধদের সাহায্য করবে।

অন্ধদের লেখাপড়ার জন্য প্রয়োজন ব্রেইল পদ্ধতি। অথচ দেশের অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ সুযোগ নেই। পরীক্ষার জন্য প্রয়োজন শ্রুতি লেখকের। দরিদ্র এসব অন্ধদের শ্রুতি লেখক সম্মানী তো দুরের কথা, লেখাপড়ার করার নুন্যতম আর্থিক ব্যয় নির্বাহ করারও সক্ষমতা নেই। তারপরেও থেমে থাকেনি এসব সংগ্রামী দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের শিক্ষা জীবন।

এ সাতজন পরীক্ষর্থীর মত আরো প্রায় ৫২ জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী পাবনার মানব কল্যান ট্রাষ্টের আশ্রয়ে থেকে ব্রেইল পদ্ধতিতে লেখাপড়া করছেন। এ প্রতিষ্ঠান থেকে নবম শ্রেণীতে ৬ জন, দশম শ্রেণীতে ৭ জন, একাদশে ৫ জন, এমএ ২ জন সহ বিভিন্ন শ্রেনীতে তাদের শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।

পাবনা মানব কল্যাণ ট্রাষ্টের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবুল হোসেন জানান, এ প্রতিষ্ঠানকে সরকারী পৃষ্টপোষকতা দেয়া হলে সারাদেশের দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের সর্বোৎকৃষ্ট শিক্ষালয় হিসেবে গড়ে উঠতে পারে।