“দেশের উন্নয় যাত্রায় আনসার ভিডিপির ভূমিকা প্রশংসনীয়”

৪:৫৫ অপরাহ্ন | রবিবার, ফেব্রুয়ারী ১২, ২০১৭ জাতীয়

আলমগীর হোসেন, কালিয়াকৈর প্রতিনিধি: সন্ত্রাস জঙ্গীবাদ দমনে আনসার ও ভিডিপির প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, দেশের উন্নয় যাত্রায় অন্যান্য বাহিনীর মতো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে এগিয়ে যাচ্ছে এ বাহিনী।

hassinna

২০২১ইং সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ইং সালের মধ্যে দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বিনির্মাণে এই বাহিনী সর্বদা কাজ করবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

আজ রবিবার সকালে গাজীপুরের সফিপুরে আনসার একাডেমিতে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ৩৭তম জাতীয় সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। সমাবেশে যোগ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বাহিনীর কুচকাওয়াজে সালাম ও অভিবাদন গ্রহণ করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের অব্যাহত উন্নয়নে অন্যান্য বাহিনীর মতো এই বাহিনী গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। একটি প্রশিক্ষিত বাহিনী হিসেবে তারা দারিদ্র বিমোচন, নারী উন্নয়ন, বেকারদের কারিগরী প্রশিক্ষণ প্রদান, আইনশৃঙ্খলা রক্ষা, সীমান্ত সুরক্ষাসহ নানামুখী কাজে নিয়োজিত রয়েছে। সর্বজন স্বীকৃত এই বাহিনীকে শক্তিশালী করতে সরকারও নানামুখী উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। দেশ-বিদেশে উন্নত প্রশিক্ষণ প্রদানসহ তাদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা দিয়েছে সরকার। দারিদ্র বিমোচন, আয় বৃদ্ধি, নারী উন্নয়নে প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে আনসার ভিডিপি ব্যাংক।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, ১৯৪৮ইং সালে প্রতিষ্ঠিত আনসার বাহিনীর রয়েছে গৌরবময় ইতিহাস। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহ্বানে সাড়া দিয়ে এ বাহিনী ১৯৭১ইং সালে মহান মুক্তিযদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে। প্রধানমন্ত্রী মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের শহীদ এবং আন্তর্জাতিক মার্তৃভাষা দিবসের এ মাসে ভাষা শহীদ আনসার কমান্ডার আব্দুর জব্বারকে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন।

প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ৩৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী এবং জাতীয় সমাবেশ উপলক্ষে বাহিনীর সকল সদস্যকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। একই সাথে তিনি প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী এবং জাতীয় সমাবেশ উপলক্ষ্যে গৃহীত সকল কর্মসূচির সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।