🕓 সংবাদ শিরোনাম

গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি হামলায় কমপক্ষে ৩৩ জনের মৃত্যুচট্টগ্রামে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ২৫, মৃত্যু ৪সুনামগঞ্জে বিদ্যুতায়িত হয়ে মা ও ছেলেসহ ৩ জনের মর্মান্তিক মৃত্যুসৌদি আসতে দিতে হবে করোনা ভ্যাকসিন, নয়তো থাকতে হবে কোয়ারেন্টিনেএখনো ঈদ করতে বাড়ী আসছে দক্ষিনঅঞ্চলের ২১জেলার হাজার হাজার মানুষকরোনার হটস্পট কেরানীগঞ্জ, ঈদে ছাপ নেই স্বাস্থ্য বিধিরবস্তার দোকানে মাদকের ব্যবসা, দুই জন আটকডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সাতক্ষীরা জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি গ্রেপ্তারভারত থেকে চট্টগ্রামে আসা ৪ জনের করোনা শনাক্ত ত্রিশালে পণ্য বিপনন মনিটরিং কমিটির মতবিনিময় সভা

  • আজ রবিবার, ২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৬ মে, ২০২১ ৷

নিখোঁজের ৩৯ দিন পর কুয়াকাটার ৯ জেলের সন্ধান মিলেছে মিয়ানমারের কারাগারে


❏ শনিবার, ফেব্রুয়ারী ১৮, ২০১৭ দেশের খবর, বরিশাল

জাহিদ রিপন, পটুয়াখালী প্রতিনিধি: নিখোঁজ থাকার ৩৯ দিন পর কুয়াকাটার ৯ জেলের সন্ধান মিলেছে মিয়ানমারের কারাগারে। মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশের গোয়া শহরের ১৮ মাইল উত্তরের জি গোনি গ্রামের থেকে দুই নটিক্যাল মাইল দুরে সাগর থেকে ১৫ ফেব্রুয়ারী এসব জেলেদের উদ্ধার করে গোয়া টাউনশিপ পুলিশ।

minama

এ সময় ট্রলার থেকে এক জেলের মৃতদেহ উদ্বার করে মিয়ানমার পুলিশ। নিহত জেলে কাওসার পটুয়াখালীর মহিপুর থানার সদর ইউনিয়নের সেরাজপুর গ্রামের শাহ আলমের ছেলে বলে সূত্রটি নিশ্চিত করেছে।

গোয়া টাউনশিপ প্রশাসক ইউ অং লিন মিয়ানমার টাইমসকে দেয়া এক বক্তব্যে জানায়, উদ্বারকৃত জেলেদের পোষাক, খাবার ও চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে। ইমেগ্রেশনের মাধ্যমে এসব জেলের তাদের দেশে হস্তান্তর করা হবে। সূত্রটি আরো জানায়, ২৮ জানুয়ারী ইঞ্জিন বিকল হয়ে ভাসতে ভাসতে মিয়ানমার জল সীমানায় পৌছায়।

১৩ জানুয়ারী কুয়াকাটার মৎস্য বন্দর আলীপুর ঘাট থেকে মাছ শিকারে উদ্দেশ্যে এফবি ফয়সাল ট্রলার নিয়ে গভীর সাগরে যায় কুয়াকাটার দশ জেলে। এরপর থেকে এসব জেলেরা নিখোঁজ ছিল। নিখোঁজ জেলেরা হচ্ছেন, কলাপাড়া উপজেলার লতাচাপলী ইউনিয়নে মাইটভাঙ্গা গ্রামের ট্রলার মাঝি আলী হোসেন গাজী (৩৫), একই এলাকার জেলে কবির হাওলাদার (৩২), সোবাহান ঘরামী (৪৫), আলমগীর মাতুব্বর (৩৫), নজরুল গাজী (৩২), হাচান হাওলাদার (১৭) এবং মহিপুর ইউনিয়নের সেরাজপুর গ্রামের রুবেল (২৫), জাহিদুল (১৮), কাওছার মুসুল্লী (২৬) ও শামীম (১৬)। এ তথ্য নিখোঁজ জেলেদের পরিবার সূত্রে জানা গেছে।

নিখোঁজ জেলেদের অনুসন্ধানে ১ ফেব্রুয়ারি থেকে এফবি ফেরদৌস ও এফবি খাদিজা নামে দুটি মাছ ধরার ট্রলার সমুদ্র ঘুরে বেড়াচ্ছে। কোন তথ্য ছাড়াই দুই দিন অনুসন্ধান শেষে ইতিমধ্যে ট্রলার দুটি আলীপুর ঘাটে ফিরে এসেছে। এ নিয়ে নিখোঁজ জেলে পরিবারের পক্ষ থেকে মহিপুর থানায় ৪ ফেব্রুয়ারী একটি সাধারন ডায়রী করা হয়েছে। ডায়েরী নম্বর-১২৯।

এদিকে নিখোঁজ জেলেদের সন্ধান পেয়ে পরিবারে শোকের অবসান হলেও দেখা দিয়েছে মিয়ানমার ফিরিয়ে আনা নিয়ে উৎকন্ঠা।