ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে আফগানিস্তানে বাংলাদেশী জঙ্গী নিহতের ‘বিভ্রান্তিকর’ সংবাদ প্রকাশ!


❏ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২০, ২০১৭ Breaking News, আন্তর্জাতিক, ফিচার

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ আফগানিস্তানের পূর্ব প্রান্তের অচিন জেলায় অপারমানবিক বোমা হামলা চালিয়েছে আমেরিকা। পাকিস্তান সীমান্ত লাগোয়া এলাকায় ওই বিস্ফোরণে ইসলামিক জঙ্গি সংগঠনের ৯৬ জন নিহত হয়েছে বলে জানানো হয়েছে আফগানিস্তান এবং আমেরিকার পক্ষ থেকে ।

ওই হামলায় বাংলাদেশী কয়েকজন নাগরিকও নিহত হয়েছে বলে ফলাও করে প্রকাশ করেছে ভারতের কয়েকটি মুল ধারার সংবাদ মাধ্যম। একইসাথে ভারতীয় পত্রিকার উধৃতি দিয়ে অনুরুপ সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে মেইন স্ট্রিমের কয়েকটি বাংলাদেশী সংবাদপত্রেও ।

আফগানিস্তানে মার্কিন হানায় মৃত জঙ্গিদের অধিকাংশই বাংলাদেশী। এমন শিরোনামে কোলকাতা ২৪/৭ প্রকাশিত একটি সংবাদে বলা হয় ‘চাঞ্চল্যকর বিষয় হচ্ছে মৃত জঙ্গিদের অনেকেই বাংলাদেশের নাগরিক।’ তবে খবরের শিরোনাম যাই হোক অনুসন্ধান বলছে নিহতদের কেওই বাংলাদেশী নাগরিক ছিলেন না বরং ১৩ জনই ছিলেন ভারতীয় !

আফগানিস্তানসহ আন্তর্জাতিক কয়েকটি পত্রিকায় প্রকাশিত খবর সুত্রে জানা যায়, ঐ হামলায় পাকিস্তান, ভারত ফিলিপাইনসহ মৃতদের তালিকায় তাজিকিস্তান, উজবেকিস্তান, রাশিয়াসহ বেশকটি দেশের নাগরিকরা আছেন। অথচ সু-পরিকল্পিতভাবে ভিত্তিহীন এই খবরটি ভারতের বাংলা পত্রিকাগুলো থেকে বেশি আকারে প্রকাশ পায়।

আফগানিস্তানের জাতীয় অনলাইন পত্রিকা পাঝক ও ভারতীয় অনলাইন পত্রিকা ইন্ডিয়া টুডে এর প্রকাশিত সংবাদ সুত্র বলছে নিহত জঙ্গীদের কেওই বাংলাদেশী নয়।

পাকিস্তান সীমান্ত লাগোয়া এলাকায় ওই বিস্ফোরণে ইসলামিক ষ্টেট জঙ্গি সংগঠনের কমান্ডারসহ মোট ৯৬ জন নিহত হয়েছে বলে জানান আফগানিস্তানের সংবাদ মাধ্যমটি।

সংবাদ মাধ্যমটির তথ্য মতে, হামলায় নিহত আইএস জঙ্গিদের মধ্যে ১৩ জন ভারতীয় জঙ্গি ছিল। হামলায় নিহত কয়েকজন আইএস জঙ্গি ও কমান্ডারদের নাম নিচে উল্লেখ্য করা হলোঃ

১। তালেবান সদস্যের একজন সাবেক কমান্ডার শহীদ ওমর আফ্রিদি পাকিস্তান থেকে।

২। কমান্ডার উইলকন, সাবেক আইএস নেতা হাফিজ সায়েদ এর ভাই।

৩। মুমতাজ,একজন অবসরপ্রাপ্ত পাকিস্তানি সামরিক কর্মকর্তা।

৪। আবুবক্কর ওরকজাই, আইএস-এর একজন অপারেশন ইউনিট কমান্ডার।

৫। পাকিস্তানের লস্কর-ই-তৈয়বার একজন সদস্য শেখ ওয়াকাস।

৬। আইএস কমান্ডার মোহাম্মদ ও আল্লাহ গুপ্তা ছিলেন ভারত থেকে।

৭। ইয়াসির খোরসানী আফগানিস্তান।

৮। ইমরান ওরাকজাই। ৯। পাকিস্তানের আফতাব পাঞ্জাবী, ১০। হামজা ওরাকজাই, ১১। হামিদ কুনুরী এবং হাজী সাদ কুনরী ইসলামিক ষ্টেটের কমান্ডার ছিলেন।

উল্লেখ্য, আইএস জঙ্গিদের অবস্থান লক্ষ্য করে ১৩ এপ্রিল জিবিইউ-৪৩ নামক একটি বোমা হামলা চালানো হয়। এই বোমাটিকে ‘মাদার অব অল বম্বস’ মনে করা হয়। পারমাণবিক বোমার পর এটিই বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী বোমা।

ওই হামলার পর ১৮ এপ্রিল এ ঘটনায় নিহতদের জাতীয়তা সম্পর্কে জানিয়েছেন আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মোহাম্মদ রাদমানিশ। তিনি বলেন, হামলায় নিহত জঙ্গিদের অধিকাংশই পাকিস্তান, ভারত, ফিলিপাইনের। একইসঙ্গে মৃতদের তালিকায় তাজিকিস্তান, উজবেকিস্তান, রাশিয়াসহ বেশকটি দেশের নাগরিকরা আছেন।

পেন্টাগন এবং আফগান কর্মকর্তারা বলছেন, ওই হামলায় আইএসের শীর্ষস্থানীয় চার কমান্ডারসহ ৯৬ জঙ্গি নিহত হয়েছে। মাদার অব অল বম্বস হিসেবে পরিচিত এ ধরনের বোমার একেকটির ওজন হয় ১০ হাজার কিলোগ্রাম। এর প্রতিটিতে থাকে ৮ হাজার ১৬৪ কিলোগ্রাম বিস্ফোরক। এটার বিস্ফোরণ ক্ষমতা ১১টন টিএনটির সমান। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় হিরোশিমায় নিক্ষেপিত লিটল বয় নামক পারমাণবিক বোমাটির বিস্ফোরণ ক্ষমতা ছিল ১৫ টন।