• আজ সোমবার। গ্রীষ্মকাল, ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ১৯শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। সন্ধ্যা ৭:১০মিঃ

প্রতারণার ফাঁদে শরীয়তপুরের ১০ যুবক: ১ বছরেও যেতে পারেনি মালয়েশিয়া

৯:৪৩ অপরাহ্ন | সোমবার, এপ্রিল ২৪, ২০১৭ Breaking News, অপরাধ, আলোচিত, ঢাকা, দেশের খবর

শরীয়তপুর প্রতিনিধি, সময়ের কণ্ঠস্বর: প্রতারকের ফাঁদে পরে এক বছরেও মালয়েশিয়া যেতে পারেনি শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার ১০ যুবক। এরা সবাই মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য ২৭ লক্ষ টাকা দিয়ে প্রতারণার শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এদিকে প্রতারণার অভিযোগে এমিটি ট্যুরস রিক্রুটিং (লাইসেন্স নং-৪২৫) বিরুদ্ধে স্থানীয় সাগর ট্রেড ইন্টান্যাশনালের স্বত্বাধিকারী মতিউর রহমান সাগর প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশী কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী এবং পুলিশের মহাপরিদর্কসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেছেন। কিন্তু অভিযোগের এক বছরেও এ ঘটনার কোন তদন্ত পূর্বক ব্যাবস্থা নেয়া হয়নি বলেও অভিযোগ রয়েছে।

প্রতারণার শিকার নড়িয়া উপজেলার ওই ১০ যুবকরা হলেন, আব্দুল হাক(৪৫), মামুন সরকার(২৫), সুমন গাজী(২৪), জাকির(২৩), এম.ডি ইকবাল(২৪), মো. মাহাবুব মিজি(৪০), আয়ুব সরদার(২৫), খোরশেদ আলম(৪২), আব্দুল লতিফ(৩০), হাসান(২৫)। এরা সবাই জনপ্রতি (২ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা) করে মোট ২৭ লক্ষ টাকা দিয়ে প্রতারণার শিকার হয়েছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, নড়িয়ার ঘড়িষার ইউনিয়নের বাসিন্দা ও ঢাকার নয়া পল্টন এলাকার, ১/২ ইর্স্টান ভিউ বিল্ডিং এর সাগর ট্রেড ইন্টান্যাশনালের স্বত্বাধিকারী মতিউর রহমান সাগর সম্প্রতি এক বন্ধুর মাধ্যমে ঢাকার নয়াপটন এলাকার সিটিহার্ট মার্কেটের ১৫ তলার এমিটি ট্যুরস রিক্রুটিং (লাইসেন্স নং-৪২৫) এর স্বত্বাধিকারী জালাল উদ্দিন ভূইয়ার সঙ্গে পরিচয় হয়। পরিচয়ের কিছুদিন পরে প্রলোভন দেখিয়ে জালাল উদ্দিন ভুইয়া সাগর ট্রেড ইন্টান্যাশনালের স্বত্বাধিকারী মতিউর রহমান সাগরকে মালয়েশিয়া যাবে এমন ১০ জন লেক ঠিক করে দিতে বলে। পরে মতিউর রহমান সাগর তার গ্রামের বাড়ির এলাকার আত্মীয়-স্বজনের পাসর্পোটসহ ১০ যুবকের ২৭ লক্ষ টাকা দেয়। কিন্তু, এমিটি ট্যুরসের স্বত্বাধিকারী জালাল উদ্দিন ভুইয়া ২৭ লক্ষ টাকা ও পাসর্পোট নিয়ে এক বছর যাবৎ গড়িমসি করছে।

sagar-polton-travels

এছারাও অভিযোগে উল্ল্যেখ করা হয়েছে, ওই ১০ যুবককে একটি হোটেলে ৪/৫ দিন রেখে কিছু না বলেই ওই প্রতারক জালাল আহম্মেদ পালিয়ে গেছে।

ওই ১০ যুবককের সাথে কথা বলে জানা যায়, এরা সবাই দিনমুজুরের কাজ করে। এরই মধ্যে সুদে আথবা কিস্তিতে টাকা এনে মালয়েসিয়া যাবার জন্য টাকা দিয়ে প্রতারণার শিকার হয়েছে। দ্রুত এর সমাধান না হলে তাদের পথে বসা ছাড়া আর কেন উপায় থাকবেনা। তাই এরা সবাই দ্রুত এ ঘটনার সমাধানের দাবী জানান।

এ বিষয়ে সাগর ট্রেড ইন্টান্যাশনালের স্বত্বাধিকারী মতিউর রহমান সাগর বলেন, এলাকার আত্মীয়-স্বজন আমার মাধ্যমে এমিটি ট্যুরসকে টাকা দিয়ে মালয়েশিয়া যেতে না পেরে দিশেহারা হয়ে পড়েছে। এক বছর আগে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশী কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী এবং পুলিশের মহাপরিদর্কসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেছি। কিন্তু কোন সুরাহা পাইনি। এ সমস্যার জন্য আমি অনেক চাপের মুখে আছি। আমি ন্যায় বিচারের জন্য জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষে সুদৃষ্টি কামনা করেন তিনি।

অভিযুক্ত জালাল উদ্দিন ভূইয়ার বক্তব্যের জন্য তার মোবাইল নম্বরে (০১৯১১-৩৪৭৭২৩) বারবার চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।