সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ২৭শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সতীর্থদের ‘ষড়যন্ত্রের’ পরেও যে কারণে দাড়ি কাটতে রাজি হলেন না কোহলি!

৮:১১ অপরাহ্ন | সোমবার, এপ্রিল ২৪, ২০১৭ Breaking News, খেলা, স্পট লাইট

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক: একসময় মুখভর্তি খোঁচা খোঁচা দাড়ির খুব কদর ছিল তরুণীদের কাছে, এখনও আছে। তবে এর পাশাপাশি সুন্দর করে ছাঁটা দাড়ি গোঁফেরও কদর কম নয়। ভারতের তিন ফরম্যাটের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকেই দেখুন না, নিজের দাড়ির প্রতি কতই না যত্ন তার! প্রেমিকা আনুশকা শর্মাও হয়তো বিষয়টা পছন্দ করেছেন। তাই সতীর্থদের ‘ষড়যন্ত্র ‘ সত্ত্বেও দাড়ি কাটতে রাজি হলেন না কোহলি! বিসয়টি একটু খুলে বলা যাক –

ভারতের ক্রিকেটে দলে বেশ কয়েকজন দাড়িওয়ালা আছেন। আইপিএলের চলতি দশম আসরে নিজেদের দাড়ি নিয়ে রীতিমতো পরীক্ষা নিরীক্ষা চালিয়েছেন রবিন্দ্র জাদেজা, হার্দিক পাণ্ডিয়া ও রোহিত শর্মারা। মুখভর্তি দাড়ি কেটে ছোট করে ফেলেছেন সবাই। এখন অনেকটা খোঁচা খোঁচা দাড়ির নতুন লুকে দেখা যায় এই ক্রিকেটারদের। ভারতীয় ক্রিকেট দলে এটাই নাকি নতুন ট্রেন্ড!

কিন্তু সতীর্থদের ‘ষড়যন্ত্রে’ ভুলে নিজের লেজ কাটতে গেলেন না কোহলি। দাড়ি কাটার পর জাদেজা-রোহিতরা সোশ্যাল সাইটে ছবি দিয়েছেন। কোহলিও একগাল দাড়ি মুখে সেলফি পোস্ট করে নিজের অবস্থান আরও পাকা পোক্ত করে দিলেন।

ভারতে এই মুহূর্তের বলিউড নায়কদের থেকেও বড় ক্রেজ হলেন কোহলি। তার চুল-দাড়ি কাঁটা থেকে শুরু করে পোশাক পর্যন্ত রীতিমত গিলে খাচ্ছে তার ভক্তর। বিষয়টা এমন হয়ে গেছে যে, কোহলি আর কারও ট্রেন্ড ফলো করেন না। নিজেই ট্রেন্ড সেট করেন। আর তার ভক্তরা সেটা নিয়ে মাতামাতি করে। এই বার্তা দেওয়ার পাশাপাশি রোহিতদের নুতন লুকের জন্য শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন কোহলি।

নিজের ছবি পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, “সরি বয়েস আমি ব্রেক দ্য বিয়ার্ডের জন্য প্রস্তুত নই। তোমাদের মেকওভার খুব সুন্দর হয়েছে।