সংবাদ শিরোনাম

খালেদা জিয়ার সিটি স্ক্যানের রিপোর্ট নিয়ে যা বললেন চিকিৎসক২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিলেন কাদের মির্জাটাঙ্গাইলে ভন্ড পুরুষ কবিরাজ নারী সেজে যুবককে বিয়ে! অতঃপর…ব্যক্তিগত কাজে সরকারি গাড়ি নিয়ে স্বাস্থ্য কর্মকর্তার ঢাকা ভ্রমণ!শেরপুরের সেই শিশু রোকনের পরিবারের পাশে ইউএনও!কক্সবাজারে অস্ত্রসহ ডাকাতি মামলার আসামি গ্রেফতারকক্সবাজারে অনুপ্রবেশকারীর পক্ষ না নেয়ায়, আ’লীগ সভাপতিকে অব্যাহতি!শাহজাদপুরে ট্যাংকলরি সিএনজি’র মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ১রমজান মাসে আলেমদের হয়রানি মেনে নেয়া যায় না: নুরুল ইসলাম জিহাদীখালেদা জিয়াকে পাকিস্তান-জাপান দূতের চিঠি

  • আজ ৩রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

খুলনা-কলকাতা দ্বিতীয় মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেন সার্ভিস আগামী জুনে নিয়মিত চলাচল করবে – রেলমন্ত্রী

৬:১৫ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৫, ২০১৭ জাতীয়

জিএস‌কে শান্ত, স্টাফ ক‌রেসপ‌ন্ডেন্ট: রেলমন্ত্রী মোঃ মুজিবুল হক বলেছেন, খুলনা-কলকাতা সরাসরি দ্বিতীয় মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেন সার্ভিস আগামী জুনে নিয়মিতভাবে চলাচল করবে।

monti-m

আজ মঙ্গলবার (২৫ এপ্রিল) দুপুরে খুলনা রেলওয়ে স্টেশনে খুলনা-রাজশাহী রুটে নতুন করে যুক্ত ৯৬৬টি অাসন বি‌শিষ্ট অত্যাধু‌নিক সু‌যোগ সু‌বিধা সম্ব‌লিত আন্তঃনগর সাগরদাঁড়ি এক্সপ্রেসের আনুষ্ঠা‌নিক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় তিনি আরও বলেন, বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার দেশের রেলের উন্নয়নে কিছুই করেনি। উপরন্তু ২০১৩-১৪ সালে আন্দোলনের নামে ট্রেনে আগুন দিয়ে পুড়িয়েছে, ভাংচুর করে ক্ষতিগ্রস্থ করেছে। আর বর্তমান সরকার দেশের সব এলাকার রেলের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে।

মন্ত্রী সারাদেশে রেলের বিভিন্ন চলমান প্রকল্পের বর্ণনা দিয়ে বলেন, এ সকল প্রকল্প সমূহের শতভাগ কাজ শেষ হলে রেল যোগাযোগ ব্যবস্থায় যুগান্তকারী পরিবর্তন আসবে। যাত্রী সেবা বৃদ্ধির লক্ষ্যেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১১ইং সালের ৪ ডিসেম্বর মাসে আলাদা রেলপথ মন্ত্রণালয় গঠন করেছিলেন। তিনিই রেল খাতে অর্থ বরাদ্দ বৃদ্ধি করেছেন। বর্তমান অর্থ বছরে এ খাতে বরাদ্দের পরিমাণ সাড়ে ১১ হাজার কোটি টাকা। অথচ পূর্বে বরাদ্দ ছিল মাত্র পাঁচশ কোটি টাকা। খুলনার উন্নয়নের প্রধানমন্ত্রীর আন্ত‌রিকতার কথা উলেখ করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই খুলনায় আধুনিক রেলস্টেশন নির্মাণ করা হচ্ছে। যা আগামী নভেম্বর মাসেই উদ্বোধন করা হবে। মন্ত্রী আরও বলেন, শীঘ্রই খুলনা থেকে যশোর পর্যন্ত ডাবল রেললাইন নির্মাণ এবং নতুন রেললাইন নির্মাণ ও সম্প্রসারণের ফলে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্থদের পুনর্বাসন করা হবে।

mon

উদ্বোধনকৃত সাগরদাঁড়ি এক্সপ্রেসে রয়েছে ৪৮টি এসি সিট ও ৭৮টি এসি চেয়ার। এছাড়া রয়েছে ৮৪০টি নন এসি শোভন চেয়ার। এ কম্পোজিশনে রয়েছে ব্রেকভ্যান সংযুক্ত ২টি উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন পাওয়ার কার। রয়েছে Wide Site View Window, সম্পূর্ণ আলাদা বাথরুম ও টয়লেট, রয়েছে হাই কমোড ও ফ্লাট কমোড, Monofocus reading Lamp, Sound Control Attenuator, Oven, Water Heater, Freeze, Electric Sharver পোর্ট। ট্রেনটিতে ১২টি কোচ রয়েছে এবং সম্প্রতি ভারতের সঙ্গে এলওসি চুক্তির আওতায় দেশে মোট ১২০টি সর্বাধুনিক এলএইচবি কোচ সংগ্রহ করা হয়।

উলেখ্য, এ ট্রেনটি ২০০৭ সালে চালু করা হয়। পূর্বে এর ধারণ ক্ষমতা ছিল মাত্র ৬৩৫ জন। যার মধ্যে এসি সিট ছিল মাত্র ৯টি। রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব ফিরোজ সালাহ উদ্দিনের সভাপতিত্বে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন সংসদ সদস্য তালুকদার আবদুল খালেক, সংসদ সদস্য ও রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থানীয় কমিটির সদস্য মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, রেলওয়ের মহা-পরিচালক মোঃ আমজাদ হোসেন, খুলনা জেলা প্রশাসক নাজমূল আহসান, ডেপুটি কমিশনার (সাউথ) মোঃ আবদুলাহ আরেফ এবং রেলওয়ে শ্রমিক লীগের সভাপতি অ্যাড. হুমায়ূন কবির। স্বাগত বক্তৃতা করেন রেলওয়ের পশ্চিম জোনের জেনারেল ম্যানেজার মোঃ খায়রুল আলম।