• আজ ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘অহংকারী’ শাকিবের কঠোর সমালোচনা করে যা বললেন পরিচালক আফসারী

৬:৩৩ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৫, ২০১৭ Breaking News, বিনোদন, স্পট লাইট

বিনোদন ডেস্ক: ঢাকাই ছবির আলোচিত নায়ক শাকিব খানকে পাঠানো বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির উকিল নোটিশ এখন সিনেপাড়ার প্রধান আলোচনার বিষয়। পরিচালকদের অভিযোগ— তাদের হেয় করে সংবাদপত্রে বক্তব্য দিয়েছেন এ নায়ক। তেমন সময়ে হিরোকে অহংকার ছাড়তে বললেন ‘মাস্টার মেকার’ হিসেবে পরিচিত নির্মাতা মালেক আফসারী। তার মতে, একজন অভিনয়শিল্পী পরিচালকের নির্দেশনা মেনে তারকা মর্যাদা পান। পরিচালক ছাড়া তার কী হাল হয়, তা ইন্টারভিউতে দেখা যায়।

‘এই ঘর এই সংসার’-খ্যাত মালেক আফসারী সোমবার ফেসবুকে লেখেন, ‘আপনি যে স্টারকে পর্দায় দেখেন, সে স্টারকে ক্যামেরার সামনে আনার জন্য পরিচালক প্রায় ৪০ জনের ইউনিট নিয়ে কাজ করেন। ইউনিটের কেউ তাকে সাজায়, কেউ কাপড় পরায়, কেউ সংলাপ পড়ায়, কেউ লাইট করে, কেউ ক্যামেরা চালায়, কেউ ট্রলি ঠেলে, কেউ খাবার খিলায় ইত্যাদি ইত্যাদি। সব কিছু চলে পরিচালকের নির্দেশে। পরিচালক পেছনে থাকে বলেই হিরোকে বড়পর্দায় ক্লিয়ার হিরো মনে হয়।’

তিনি আরো লেখেন, ‘এমনিতে প্রমাণ দেখেন ১০ মিনিটের ইন্টারভিউতে ২০বার ভুল করবে। শুটিংয়েও ভুল করেন, কিন্তু পরিচালক বার বার রি-টেক করে ভুল শুধরিয়ে দেন। কিন্তু মুশকিল হো গিয়া সরাসরি প্রোগ্রামে। পেছনে যে পরিচালক নাই ক্লিয়ার বুঝা যায়। সব আগোছালো কথাবার্তা। তার মানে কি দাঁড়াল? যাদের অপমান করে কথা বললেন তারাই তো আসল, তাই না? আমরা সবসময় আছি, স্টাররা আসছে ঝরে যাচ্ছে। পরিচালকের কারনে স্টার জন্ম নেয় এই কথাটা বুঝার জন্য পন্ডিত হবার দরকার নাই। জাস্ট অহংকার ঝেড়ে ফেলে মুখের নকল হাসিটুকু আসল করতে হবে।’

স্ট্যাটাসটিতে দেড় হাজারের মতো লাইক দেখা যায়। মন্তব্য পড়ে শ’দুয়েক। এর মধ্যে অনেকেই শাকিব খানকে ঘিরে তর্কে মেতে উঠেন।

উল্লেখ্য, শাকিব খানকে নায়ক করে মালেক আফসারী নির্মাণ করেছেন হিরা চুনি পান্না, ঠেকাও মাস্তান, মনের জ্বালা ও ফুল অ্যান্ড ফাইনালের মতো জনপ্রিয় সিনেমা।

এর আগে দেশের একটি জাতীয় দৈনিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে চলচ্চিত্র পরিচালকদের নিয়ে ‘কটূক্তি ও মানহানিকর’ বক্তব্যের অভিযোগে চলচ্চিত্র সংক্রান্ত সব কাজে শাকিব খানকে সাময়িক বয়কটের ঘোষণা দেয় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি। সোমবার (২৪ এপ্রিল) বিকালে দেশের চিত্রপরিচালকদের একমাত্র সংগঠনটির এক চিঠিতে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

বিষয়টির সম্মানজনক সুরাহা না হওয়া পর্যন্ত শাকিব খান এই অলিখিত ‘নিষেধাজ্ঞা’র কবলে থাকবেন। চিঠিটি স্বাক্ষর করেন সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন।

এর আগে প্রকাশিত খবর…

চলচ্চিত্র নির্মাণে শাকিব খানকে বয়কটের ঘোষণা