বগুড়ায় সেফটিক ট্যাংকে ঢুকে দুই শ্রমিকের মৃত্যু


❏ মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৫, ২০১৭ Breaking News, দেশের খবর, রাজশাহী, স্পট লাইট

বগুড়া প্রতিনিধি– বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলা সদরের বানাইল মহল্লায় সেফটিক ট্যাঙ্কের ভেতরে ঢুকে দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পৌর এলাকার বানাইল মহল্লার বাবলু প্রামানিকের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

saftyনিহতরা হলেন, গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার তালুক বেলকা গ্রামের ফয়জার রহমানের ছেলে রাজমিস্ত্রী আঙ্গুর হোসেন (২৮) এবং তার সহকারী শ্রমিক একই এলাকার সাদেক আলীর ছেলে শাহ আলম আলী (২২)।

পুলিশ জানায়, শিবগঞ্জ পৌরসভার বানাইল মহল্লার বাসিন্দা বাবলু মিয়ার বাড়িতে সেপটিক ট্যাংক নির্মাণ করা হচ্ছিল। কয়েকদিন আগে সেপটিক ট্যাংকের ছাদ ঢালাই করা হয়। ঢালাই কাজে ব্যবহৃত সাটারিং খোলার জন্য শাহ আলম ও আঙুর মিয়া নামে দুই শ্রমিক মঙ্গলবার বেলা ৪টার দিকে ওই সেফটি ট্যাঙ্কের ভেতরে নামে। কিন্তু অনেক সময় অতিবাহিত হওয়ার পরেও তাদের কোন সাড়া শব্দ পাওয়া যাচ্ছিল না।

পরে এলাকার লোকজন বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে সেফটি ট্যাঙ্কের সাটারিংগুলো বিশেষ কায়দায় উপর থেকে সরিয়ে ফেলার পর ওই দুই শ্রমিকের নিথর দেহ ভেতরে জমে থাকা পানিতে ভাসতে দেখেন। পরে তাদের মরদেহ উপরে তোলা হয়।

শিবগঞ্জ থানার ওসি শাহীদ মাহমুদ খান জানান, মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। বিষাক্ত গ্যাসের কারণেই দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা ওসির।