• আজ শুক্রবার। গ্রীষ্মকাল, ১০ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ২৩শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। সকাল ৬:০১মিঃ

বাংলাদেশ সফরের পূর্বনির্ধারিত সূচি বাতিল করল পাকিস্তান!

⏱ | বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৭, ২০১৭ 📁 Breaking News, খেলা, স্পট লাইট

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক: বাংলাদেশ সফর বাতিল করার ঘোষণা দিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। আসছে জুলাই-অগাস্টে দুটি টেস্ট, তিনটি ওয়ানডে আর একটি টি-টোয়েন্টির সিরিজ খেলতে পূর্বনির্ধারিত সূচি অনুযায়ী ঢাকায় আসছে না পাকিস্তান।

আসন্ন সেই সিরিজটি অন্তত চলতি বছর আর আলোর মুখ দেখছে না বলে জানিয়েছেন শাহরিয়ার খান। ক্রিকইনফোর কাছে দেশটির বোর্ড প্রধান দাবি করেছেন, দুই বোর্ডের পারস্পরিক সম্মতিতেই সিরিজটি পেছানো হয়েছে।

ক্রিকইনফোকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে শাহরিয়ার বলেছেন, ‘আমরা এই বছরে পাকিস্তানে বাংলাদেশের সফরের সম্ভাব্যতা নিয়ে কথা বলেছি। কোন প্রকার সফর বিনিময় ছাড়াই পাকিস্তান দুবার বাংলাদেশ সফর করেছে। মনে হয় না আমাদের টানা তৃতীয়বারের মত দেশটিতে যাওয়া ঠিক হবে। তাই পিসিবি সফর বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামী বছরের কোন এক সময়ের জন্য এই সফর নিয়ে আলোচনা করা যেতে পারে।’

অনেকদিন ধরেই বাংলাদেশকে পাকিস্তান সফর করার জন্য চাপ সৃষ্টি করছিল পিসিবি। চলতি বছরেও দুটি টি-টুয়েন্টি খেলতে বিসিবিকে আমন্ত্রণ জানায় দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। কিন্তু নিরাপত্তাজনিত ঝুঁকিতে সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে বিসিবি। সর্বশেষ ২০১৫ সালে ৩,২৫,০০০ ডলার ক্ষতিপূরণ দিয়ে পাকিস্তানকে বাংলাদেশ সফরে আসতে রাজী করায় বিসিবি।

এবারও পিসিবির সেই রকম আর্থিক দাবিতে সরাসরি আপত্তি জানায় বিসিবি। প্রয়োজনে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে সিরিজ আয়োজনের দাবি জানায় বাংলাদেশ ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থাটি। কিন্তু বাংলাদেশের সঙ্গে আরব আমিরাতে সিরিজ আয়োজন পাকিস্তানকে আর্থিকভাবে লাভবান করবে না বলে দাবি করেছে পিসিবি। আমিরাতের মাটিতে তারা নিজেদের ঘরোয়া সিরিজগুলো খেলে আসছে দীর্ঘদিন।

পাকিস্তানের সফর বাতিলের ঘোষণার মাধ্যমে দুই দেশের বোর্ড সম্পর্কে নেমে আসতে পারে শীতলতা। সাবেক পিসিবি প্রধান জাকা আশরাফের সময়ে পিসিবি-বিসিবি সম্পর্কে ফাটল সৃষ্টি হয়। দুই দলের সম্পর্কের ফাটলের জেরে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ খেলতে নাও আসতে পারেন পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা।

চলতি বছরে পাকিস্তান সুপার লিগের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয় করাচীতে। সেখানে কিছু বিদেশি খেলোয়াড় খেলেছেন। যার মধ্যে ছিলেন টাইগারদের এনামুল হক বিজয়ও। কিন্তু দেশটিতে একের পর এক সন্ত্রাসী হামলায় এখনও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নির্বাসনেই আছে পাকিস্তানি ক্রিকেট।

বাংলাদেশ সর্বশেষ ২০০৭-০৮ মৌসুমে পাঁচ ওয়ানডের সিরিজের জন্য পাকিস্তান সফর করেছিল। এরপর ২০১১-১২ মৌসুমে ও ২০১৫ সালে বাংলাদেশে খেলতে আসে দেশটির ক্রিকেট দল।