• আজ ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

চ্যাম্পিয়ন ট্রফি না খেললে ভারতকে বড় শাস্তি দেবে আইসিসি!

৪:৩৬ অপরাহ্ন | বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৭, ২০১৭ Breaking News, খেলা, স্পট লাইট

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক: বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থা আইসিসি’তে জোর ধাক্কা খেয়েছে ভারত। সদস্য দেশগুলির মধ্যে কীভাবে আর্থিক পুনর্বিন্যাস হবে আর আইসিসি আগামী দিনে কীভাবে পরিচালিত হবে, তা নিয়ে এক গুরুত্বপূর্ণ ভোটাভুটিতে একঘরে হয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই।

আর্থিক পুনর্বিন্যাসের বিষয়ে ১৩-১ ভোটে ভারতের দেওয়া প্রস্তাবটি পরাজিত হয়েছে আর নতুন পরিচালন নীতির ভোটাভুটিতে ২-৮ ভোটে পরাস্ত হয়েছে ভারত। এখন, আইসিসি চ্যাম্পিয়ন ট্রফি না খেললে ভারতকে বড় শাস্তি দেবে আইসিসি! এরই পরিপ্রেক্ষিতে প্রশ্ন উঠেছে, আসন্ন চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ভারতের অংশগ্রহণ নিয়ে।

আইসিসি-তে পাস হওয়া গঠনসংক্রান্ত প্রস্তাবে খারিজ হয়ে গেল তিন মডেলের তত্ত্ব। এতে ভারতকে বিশেষ মর্যাদা দেয়া হয়েছিল। আর্থিক মডেলের যে প্রস্তাব অনুমোদিত হয়েছে তাতে ২০১৫ থেকে ২০১৩ পর্যন্ত সময়ে আইসিসি-র আয়ে ভারতের ভাগের পরিমাণ হবে অনেক কম।

ভারতীয় বোর্ডের দাবি ছিল, আইসিসি-র মোট আয়ের ২১ শতাংশ। কিন্তু নতুন যে প্রস্তাব অনুমোদিত হয়েছে, তাতে ভারতীয় বোর্ড দাবি মতো ৫৭০ মিলিয়ন ডলারের পরিবর্তে পাবে মাত্র ২৯০ মিলিয়ন ডলার।

এই ঘটনায় অত্যন্ত ক্ষুব্ধ ভারতীয় বোর্ডের কর্তারা। বোর্ডের রাজ্য সংস্থাগুলির কর্তাব্যক্তিরা বিশেষ বৈঠক ডাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির জন্য দল ঘোষণার শেষ সময়সীমা পেরিয়ে গিয়েছে। ভারত এখনো দল ঘোষণা করেনি।

আইসিসি-তে ভোটে হেরে যাওয়ার ঘটনা অত্যন্ত হতাশ সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত বোর্ডের প্রশাসকদের কমিটির চেয়ারম্যান বিনোদ রাই। তিনি জানিয়েছেন, পরবর্তী পদক্ষেপ ঠিক করতে তিনি বোর্ড সদস্যদের বিশেষ সাধারণ সভার বৈঠক ডাকার অনুমতি দেবেন।

গতকালের আইসিসি-র সভার আগে পর্যন্ত ভারতের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে না খেলার সম্ভাবনা ছিল জল্পনামাত্র। কিন্তু ২৪ ঘন্টার মধ্যে বদলে গেছে পরিস্থিতি। এক পদস্থ ক্রিকেট প্রশাসক জানিয়েছেন, আইসিসি স্পষ্টতই ভারতের বোর্ডের সঙ্গে স্বাক্ষরিত চুক্তি লঙ্ঘন করেছে।

তিনি আরো বলেছেন, প্রতিবাদ হিসেবে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি বয়কট করুক ভারত। এরপর দেখা যাক আইসিসি-র কতগুলি দেশ নতুন প্রস্তাব নিয়ে অনড় থাকতে পারে। তিনি আইসিসি-কে এভাবে সবক শেখানোর পক্ষ সওয়াল করেছেন।

যদিও বোর্ডের পুরানো প্রশাসকদের সিদ্ধান্তই এক্ষেত্রে চূড়ান্ত হবে না। সুপ্রিম কোর্টের রায় অনুসারে বিসিসিআই সংক্রান্ত যাবতীয় কার্যকলাপ ও সিদ্ধান্তের ভার প্রশাসক কমিটির হাতেই ন্যস্ত। এক ক্রিকেট প্রশাসক বলেছেন, বল এখন বিনোদ রাইয়ের কোর্টে।

কিন্তু বোর্ডের পক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি সম্পূর্ণ বয়কট করা কঠিন হবে। কেননা, আইসিসি আয়োজিত সমস্ত টুর্নামেন্টে খেলার ব্যাপারে ইতিমধ্যেই চুক্তি করেছে বোর্ড। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি সেই চুক্তির অন্তর্গত। এখন না খেললে বড় ধরনের জরিমানার মুখে পড়তে হবে!