• আজ ৩রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরকে ৭ উইকেটে হারালো গুজরাট লায়ন্স

৫:৪১ পূর্বাহ্ন | শুক্রবার, এপ্রিল ২৮, ২০১৭ খেলা

ক্রীড়া ডেস্কঃ রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙালুরু ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) গেল আসরের রানার্সআপ। গুজরাট লায়ন্স গেল আসরের লিগ পর্ব শেষ করেছিল পয়েন্ট শীর্ষে থেকে। অথচ আইপিএলের চলতি দশম আসরে ধুঁকছে দুদলই। টানা বাজে পারফরম্যান্সের কারণে শঙ্কায় দুদলের প্লে-অফ পর্বে খেলা। শেষ চারের দৌড়ে টিকে থাকতে জয়ের বিকল্প নেই, এমন সমীকরণ সামনে রেখেই মুখোমুখি দু-দল।

১৩৪ রানের টার্গেট টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে খুব বড় নয়। বিষয়টি গুজরাট লায়ন্সের ব্যাটসম্যানদের অজানা ছিল না। তাইতো শুরু থেকেই রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর ছুড়ে দেওয়া ১৩৫ রানের টার্গেটে মারমুখী ব্যাটিং করে গুজরাটের ব্যাটসম্যানরা।

১৮ রানে প্রথম ও ২৩ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারানোর পর দায়িত্বশীল ব্যাটিং করেন সুরেশ রায়না। তার সঙ্গে ব্যাট হাতে তা-ব চালান অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান অ্যারোন ফিঞ্চ। সুরেশ রায়না ৩০ বলে ৪টি চার ও ১ ছক্কায় অপরাজিত থাকেন। কিন্তু ফিঞ্চ ৩৪ বলে ৫টি চার ও ৬টি ছক্কায় ৭২ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে আউট হন। তার স্ট্রাইক রেট ছিল ২১১.৭৬। তাতে ১৩.৫ ওভারে মাত্র ৩ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলে গুজরাট। জয় পায় ৭ উইকেট ও ৩৭ বল হাতে রেখে।

এ জয়ের ফলে ৮ ম্যাচের ৩টিতে জিতে ৬ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে গুজরাট লায়ন্স। ৯ ম্যাচ থেকে ৫ পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানে রয়েছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। এমনিতেই সুবিধাজনক অবস্থানে নেই গেল আসরের ফাইনালিস্ট বেঙ্গালুরু। তার উপর এই হার তাদের আরো ব্যাকফুটে ঢেলে দিয়েছে। লিগে তাদের ম্যাচ বাকি রয়েছে ৫টি। নক-আউট পর্বে যাওয়ার সম্ভাবনা ক্রমেই ক্ষীণ হয়ে আসছে কোহলি-গেইলদের জন্য।

এর আগে বেঙ্গালুরুর ইনিংসে ক্রিস গেইল, বিরাট কোহলি ও এবি ডি ভিলিয়ার্স ব্যাট হাতে সুবিধা করতে পারেননি। পাওয়ান নেগির ৩২ ও কেদার যাদবের ৩১ রানে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৩৪ রানে বেশি করতে পারেনি।

বল হাতে ৪ ওভারে ১২ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন গুজরাট লায়ন্সের অ্যান্ড্রু তায়ে।