• আজ ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

যে কারণে সাকিবদের বহিষ্কারের হুমকি দিয়েছিলেন গম্ভীর!

৫:১৪ অপরাহ্ন | শুক্রবার, এপ্রিল ২৮, ২০১৭ Breaking News, খেলা, স্পট লাইট

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক: আইপিএলের দশম আসরে কলকাতা নাইট রাইডার্সের জয়রথ ছুটছেই। আগের ম্যাচ পুনে সুপারজায়ান্টসকে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীষস্থানে উঠে গেছে গৌতম গম্ভীরের দল। আট ম্যাচে মাত্র দুটিতে হেরেছে কলকাতা। তবে সফলতা এমনিতেই আসেনি কলকাতার। সতীর্থদের রীতিমতো হুমকি দিয়ে দলের সাফল্য এনেছেন গম্ভীর। ভারতের একটি পত্রিকায় লেখা কলামে খোদ গম্ভীরই এমনটা জানিয়েছেন।

এবারের আইপিএলে শুরুর দিকে ভালোই খেলছিল কলকাতা। তবে ইডেনে গুজরাটের বিপক্ষে ফিল্ডারদের ব্যর্থতায় হেরে বসে কলকাতা। পরের ম্যাচে বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে আবার ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে গম্ভীরের দল। মাত্র ১৩১ রানে অলআউট হয়ে যায় কলকাতা।

এত অল্প রানে অলআউট হওয়ার সতীর্থদের দায়িত্বজ্ঞানহীন ব্যাটিংয়ে মোটেও খুশি ছিলেন না গম্ভীর। বেঙ্গালুরুর ব্যাটিং শুরু হওয়ার আগে সতীর্থদের সঙ্গে মিটিংয়ে বসেন অধিনায়ক। অসন্তুষ্ট থাকলেও গম্ভীর নিজেকে সংযত রাখার চেষ্টা করছিলেন। তবে পারছিলেন না।

টিম মিটিং সম্পর্কে গম্ভীর তাঁর কলামে বলেন, ‘সাত বছর কলকাতার অধিনায়কত্ব করছি তবে কখনই এতটা রাগিনি আমি। গুজরাটের বিপক্ষে আগের দিনের হারটা মানতে পারছিলাম না। এরপর বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে এক উইকেটে ৬৫ রান থেকে ১৩১ রানে অলআউট হয়ে যাই আমরা। এটা মেনে নেওয়া কষ্টকর ছিল। আমি নিজেকে শান্ত রাখার চেষ্টা করছিলাম। বিরতির সময় সবাইকে ডেকে ছোট একটা মিটিং করে নিলাম। সতীর্থদের লড়াই করার জন্য তাগাদা দিলাম। আর এটা বলে হুমকি দিয়েছি, কেউ যদি দল থেকে বাদ পড়ে যায় তাহলে আমার অধিনায়কত্বে এটাই তার শেষ ম্যাচ হবে।’

গম্ভীর তাঁর কলামে আরো লেখেন, সেই মিটিংয়ের পর সতীর্থরা তাঁর দিকে বিস্মিতভাবে তাকাচ্ছিল। কারণ গত সাত বছরে কখনই দলের অন্যদের সঙ্গে এভাবে কথা বলেননি তিনি।